আন্তর্জাতিক

চীনে মুসলিমদের হালাল খাবার বিক্রি বন্ধে অভিযান

জুমবাংলা ডেস্ক : দেশটির উইঘুর মুসলিমদের মধ্যে জঙ্গিবাদ প্রবণতা বাড়ার পেছনে হালাল খাবার দায়ী বলে চীনের একটি পত্রিকা দাবি করেছে। চীনের ঝিনঝিয়াং প্রদেশে হালাল খাবার বিক্রির বিরুদ্ধে কর্তৃপক্ষের অভিযানের পক্ষে যুক্তি তুলে ধরতে গিয়ে পত্রিকাটি এ মন্তব্য করে।

এদিকে ঝিনঝিয়াংয়ের চীনা কর্তৃপক্ষ আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়ে হালাল খাবার বিক্রির বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছে। ঝিনঝিয়াংয়ের রাজধানী উরুমকিতে এ অভিযান শুরু করা হয়।

চলতি সপ্তাহে উরুমকিতে চীনা কমিউনিস্ট পার্টির নেতারা হালাল খাবার খাওয়ার প্রবণতার বিরুদ্ধে আদর্শিক যুদ্ধ চালাতে কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানান।

কমিউনিস্ট পার্টি ও স্থানীয় সরকারের হালাল খাবার বিরোধী অভিযানের পক্ষে প্রবন্ধ প্রকাশ করে চীনের রাষ্ট্রীয় পত্রিকা গ্লোবাল টাইমস। এতে বলা হয়, ‘হালাল খাবারের কারণে ধর্মীয় ও ধর্মনিরপেক্ষতার মধ্যে দেয়াল সৃষ্টি হয়। ফলে সহজেই ধর্মীয় উগ্রবাদে জড়িয়ে পড়ে মুসলিমরা।’

চীনের ঝিনঝিয়াং প্রদেশে দীর্ঘদিন ধরে অস্থিরতা ও সংঘাত চলছে। এজন্য জঙ্গিবাদকে দায়ী করে থাকে চীন।

প্রদেশটিতে প্রায় এক কোটি বিশ লাখ মুসলমানের বসবাস। সেখানে তাদের ওপর কর্তৃপক্ষ নানা প্রকার নির্যাতন চালায় বলে অভিযোগ রয়েছে।

২০১৮ সালে প্রকাশিত জাতিসংঘের এক রিপোর্টে বলা হয়, বর্তমানে চীনে ১০ লাখ মুসলিমকে ক্যাম্পে আটক রাখা হয়েছে। চলতি বছরের আগস্টে এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে চীন।

মানবাধিকার সংগঠনগুলো বলছে, এসব ক্যাম্পের মূল উদ্দেশ্য হলো মুসলিমদের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিংয়ের অনুগত করা এবং তাদের বিশ্বাস ত্যাগ করতে উদ্বুদ্ধ করা।

জুমবাংলানিউজ/এএসএমওআই