স্বাস্থ্য

গ্যাস্ট্রিকে ভুগছেন; জেনে নিন এ সমস্যার কারণ ও সমাধান

গ্যাসের সমস্যা বাঙালির কাছে নতুন কিছু নয়। কমবেশি সবারই এই সমস্যা আছে বা মাঝে মধ্যে হয়। কিন্তু হেলাফেলা করলে তা মারাত্মক হতে পারে।

১. রসুন:
রসুন খাওয়ার পরে অনেকেরই গ্যাসের সমস্যা হয়। রসুনের মধ্যে প্রচুর স্বাস্থ্যকর উপাদান। তাই গ্যাস হবে ভেবে রসুনকে এড়িয়ে যাবেন না। রসুন রান্না করে খান, কাঁচা খাবেন না। তাহলে গ্যাসের ভয় নেই।

২. মটরশুঁটি:
শীতের সবজি মটরশুঁটিতে রয়েছে প্রোটিন, ফাইবার। তবে কখনও কখনও পেটে গ্যাস তৈরি করতে পারে। রেহাই পেতে রান্নার আগে সারা রাত মটরশুঁটি জলে ভিজিয়ে রাখুন। সহজে হজম হবে।

৩. পেঁয়াজ:
কাঁচা পেঁয়াজ খেলে অনেকেরই গ্যাসের সমস্যা হয়। তবে রান্নার পরে পেঁয়াজ খেলে সমস্যা হয় না।

৪. বাঁধাকপি:
গ্যাসের সমস্যা তৈরি করতে বাঁধাকপি এক নম্বরে। তবে ফাইবার, আয়রন, ভিটামিন এবং মিনারেলসমৃদ্ধ খাবার। কিন্তু যাদের সহ্য হবে না তাদের না খাওয়াই ভাল। তার বদলে শসা, পালং শাক ইত্যাদি খেলে একই উপকার মেলে।

৫. দুগ্ধ-জাতীয় খাবার:
দুধ এবং দুগ্ধ জাতীয় খাবার পনির, দই, মাখন এগুলি স্বাস্থ্যের জন্য উপকারি। তবে অনেকের ক্ষেত্রেই এই খাবারগুলো পেটে গ্যাস তৈরি করে। বিকল্প হিসেবে নারকেলের দুধ, বাদামের দুধ, সয়াবিনের দুধ খাওয়া যেতে পারে।

ভিডিও নিউজ :১৫০ বছর আগের ঢাকা কেমন ছিলো দেখুন এক নজরে!!! (ভিডিও)

জুমবাংলানিউজ/এসওআর



সর্বশেষ খবর