জাতীয় বিভাগীয় সংবাদ স্লাইডার

গৃহবধুর মরদেহ হাসপাতালে, লাপাত্তা শ্বশুরবাড়ির লোকজন

ছবি- হাসাপাল চত্বরে মৃত শারমিনের স্বজনেরা

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি : মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে শারমিন বেগম (২৬) নামের এক গৃহবধুর মরদেহ ও আড়াই বছরের একটি শিশুকে আশংকাজনক অবস্থায় রেখে যাওয়া হয়েছে। গৃহবধুটির দেবর পরিচয়ে মো. সালাম নামের এক যুবক ওই দুজনকে হাসাপাতালে রেখে লাপাত্তা হয়ে যায়। হাসপাতাল কতৃপক্ষকে মো. সালাম জানায়, মা ও মেয়ে একইসাথে সাপ তাড়ানো ওষুধ খেয়ে ফেলেছে।

বুধবার দুপুর আড়াইটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, শারমিন বেগম নামের ওই গৃহবধুকে মৃত  আর শিশুটিকে গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছিলো। তাৎক্ষণিকভাবে শিশুটিকে ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের কর্তব্যরত ডা: শৈবাল বসাক জানান, ‘মৃত অবস্থায় একজন গৃহবধুকে বুধবার দুপুরে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। ওই সময় আশংকাজনক অবস্থায় একটি শিশুকেও আনা হয়। মেয়ে শিশুটিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্ররণ করা হয়েছে।’

এদিকে ঘটনার পরদিন বৃহস্পতিবার শারমিন বেগমের বাড়ির লোকজন খবর পেয়ে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে আসেন। তারা জানান, মৃত শারমিন বেগম সিরাজদিখান উপজেলার রশুনিয়া ইউনিয়নের আবির পাড়া গ্রামের দীন ইসলামের বড় মেয়ে। টঙ্গিবাড়ি উপজেলার মারিয়ল গ্রামের রাজ্জাক দেওয়ানের ছেলে আলম দেওয়ানের ছেলের সাথে ২০১১ সালে বিবাহ দেওয়া হয়।

হাসাপাতালে শারমিনের শ্বশুর বাড়ির কারও উপস্থিতি দেখতে না পেয়ে তারা ক্ষোভে ফেটে পড়ে। তারা অভিযোগ করে, শারমিনকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করে হাসপাতালে রেখে তার শশুর বাড়ির লোকজনেরা পালিয়েছে।

নিহত শারমিনের খালু জহিরুল হক অভিযোগ করেন, বিয়ে হওয়ার পর থেকে তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন বিভিন্ন কায়দায় নির্যাতন চালাতো। প্রতিবাদ করলে ছোট মেয়ে আইভিকে মেরে ফেলার হুমকি ধামকিও দিতো। তিনি বলেন, শারমিনকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়েছে।

এদিকে শারমিনের শ্বশুরবাড়িতে একাধিকবার ফোন করা হলেও কোনোরকম যোগাযোগ স্থাপন করা সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে টঙ্গিবাড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহ মো: আওলাদ হোসেন জানায়, আমরা শুনেছি এমন একটি ঘটনা ঘটেছে। এটা হত্যা না আত্মহত্যা ময়নাতদন্ত রির্পোট শেষে বলা যাবে। পরিবারের পক্ষ থেকে এখনো কোন লিখিত অভিযোগ আসেনি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

জুমবাংলানিউজ/পিএম