জাতীয় রাজনীতি

গাড়ি প্রসঙ্গে আইভীকে এক হাত নিলেন সাখাওয়াত

ভোটের প্রচারে এক ঠিকাদারের গাড়ি ব্যবহার করার অভিযোগে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরশেন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভীকে একহাত নিলেন বিএনপির প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেন খান।

বিষয়টি স্বীকার করে নিয়ে গত মেয়াদের মেয়র আইভী বলেছেন, নিজের গাড়ি না থাকায় তিনি শুধু ওই ঠিকাদারের গাড়ি নয়, আত্মীয়-স্বজনের গাড়িও ব্যবহার করছেন। নির্বাচনের কয়েকদিন আগে বিএনপিপ্রার্থীর এ ধরনের অভিযোগকে ‘রাজনৈতিক প্রচারণার অংশ’ বলেছেন তিনি।

রোববার বন্দর থানার ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের চৌরাপাড়া, নবীগঞ্জ, কাইতাখালী প্রভৃতি এলাকায় গণসংযোগে গিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন বিএনপির প্রার্থী সাখাওয়াত।

তিনি বলেন, “উনি যে পাজেরো গাড়িটি দিয়ে নির্বাচনী প্রচার পরিচালনা করছেন, গাড়িটি হচ্ছে সিটি করপোরেশনের একজন ঠিকাদারের। সিটি করপোরেশনের ঠিকাদারি কাজকর্মের ৭০ হতে ৮০ শতাংশ সেই ঠিকাদারের নিয়ন্ত্রণে।

“আজকে তার গাড়িতে করে প্রচার চালাচ্ছেন, ভোটারদের কাছে যাচ্ছেন, এতেই বোঝা যায়, জনগণ যে দাবি করেছিল, ৭০-৮০ ভাগ ঠিকাদারি কাজ তাকে দিয়েছেন, সেটার মাধ্যমে বুঝা যায়, সেই বিশেষ ঠিকাদার তাকে সুবিধা দিয়েছে এবং তার ঠিকাদারি ব্যবসার সাথে সাবেক মেয়র সাহেবও জড়িত।”

সরকারি দল নির্বাচনে বিভিন্ন প্রভাব খাটাচ্ছে বলে সাখাওয়াতের অভিযোগকে আইভীর ‘রাজনৈতিক স্ট্যান্টবাজি’ বলার প্রতিক্রিয়ায় বন্দর এলাকায় একটি বড় আকারের নৌকা প্রতীক দেখিয়ে সাখাওয়াত বলেন, “এখানে যে সাইজের নৌকাটা সাঁটানো হয়েছে, সেটার কি আইনগত বিধান আছে?”

তৃতীয়পক্ষ গোলযোগ সৃষ্টি করতে পারে, নির্বাচন কমিশনের মতবিনিময়ে আইভীর এমন অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপিপ্রার্থী বলেন, “আপনি ওনাকে জিজ্ঞেস করেন, তৃতীয়পক্ষটা কে? আমরা এখানে তৃতীয় পক্ষ দেখি না। আমরা দেখি দুইটা পক্ষ, আওয়ামী লীগ এবং বিএনপি।

“বিএনপির পক্ষ থেকে আমরা ইতোপূর্বে বলেছি, আমরা বিরোধী দল, কোনো জোর বা খারাপ পরিস্থিতি সৃষ্টি করব না, আমি শান্তিপ্রিয় লোক সবসময়, শান্তিপূর্ণভাবে-নিরপেক্ষ ভোট হোক, সেটা চাচ্ছি।”

তিনি বলেন, “তৃতীয় পক্ষ ওনার লোকই। উনি এখন, ওনার ‍উপর আমরা আচরণবিধি ভঙ্গের যে অভিযোগগুলো আনছি, সেই অভিযোগগুলো অস্বীকার করার জন্য, অন্যদিকে প্রবাহিত করার জন্য কাল্পনিকভাবে তৃতীয়পক্ষ তৈরি করছেন।”

অন্যদিকে সকালে নগরীর ১১ নম্বর ওয়ার্ডের খানপুর এলাকা থেকে গণসংযোগ শুরু করেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী।

এসময় বিএনপিপ্রার্থীর সব অভিযোগের বিষয়ে সাংবাদিকরা জানতে চাইলে তিনি নির্বাচনী প্রচারে সুফিয়ান নামের ঠিকাদারের গাড়ি ব্যবহারের প্রসঙ্গে কথা বলেন।

তিনি বলেন, “সুফিয়ান যুবলীগের কর্মী। ঠিকাদারি ওর পেশা। আমি শুধু সুফিয়ানের গাড়ি ব্যবহার করি না। আমার বোন-ভাই অনেকের গাড়ি ব্যবহার করি। আমার নিজের গাড়ি নাই, আমি কী করব?”

সুফিয়ান অন্তত ৭০ ভাগ কাজ নিয়ন্ত্রণ করে এমন অভিযোগের বিষয়ে আইভী বলেন, “সুফিয়ান কেন… আপনি খোঁজ করে দেখেন, নারায়ণগঞ্জে ঠিকাদারি নিয়ন্ত্রণের সুযোগ কারোরই নাই। নির্বাচনের দুই দিন আগে এই প্রোপাগান্ডা নিয়ে হাজির হইছেন উনি (সাখাওয়াত)!”

“আমার আত্মীয়-স্বজন কেউ কি ব্যবসা করবে না? উনার আত্মীয় স্বজন কেউ কি ব্যবসা করে না? উনি এখন গাড়ি ব্যবহারের কথা বলছেন,” বলেন আইভী।

রোববার সিটি করপোরেশনের ১২ ও ১৩ ওয়ার্ডেও আইভীর গণসংযোগ করার কথা রয়েছে বলে তার নির্বাচনী মিডিয়া সেল থেকে জানানো হয়েছে।

ভিডিওঃ স্তনের মাপ জানতে চেয়ে ফেসবুকে পোস্ট, জবাবে নায়িকা যা বললেন (ভিডিও)

Add Comment

Click here to post a comment