অর্থনীতি-ব্যবসা জাতীয় স্লাইডার

খারাপ ব্যাংকগুলোকে ভালো ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত করা হবে : অর্থমন্ত্রী

জুমবাংলা ডেস্ক : বাংলাদেশের ব্যাংকগুলোর ভবিষ্যৎ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্বব্যাংক। সেই সঙ্গে ঝুঁকিতে থাকা ব্যাংকগুলো একীভূত করার পরামর্শ দিয়েছে সংস্থাটি। যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে চলমান বিশ্বব্যাংক ও আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) বসন্তকালীন সভা থেকে এ পরামর্শ এসেছে।

এ সভায় যোগ দিতে বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। বিশ্বব্যাংকের পরামর্শ মেনে খারাপ ব্যাংকগুলোকে ভালো ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত করা হবে বলে সংস্থাটিকে জানিয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি বিশ্বব্যাংক ও আইএমএফের বসন্তকালীন সভার দ্বিতীয় দিনে  বাংলাদেশের আর্থিক খাত নিয়ে একটি প্রতিবেদন তুলে ধরে বিশ্বব্যাংক। ওই প্রতিবেদনে বহুজাতিক সংস্থার নীতিনির্ধারকরা বাংলাদেশে ব্যাংকের সংখ্যা কমিয়ে আনার পরামর্শ দেন। বাড়তে থাকা খেলাপি ঋণের লাগাম টেনে ধরারও পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

বেশ কয়েকটি বৈঠকে অংশগ্রহণ অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, বিশ্বব্যাংক বলেছে, আমাদের ব্যাংকের সংখ্যা বেশি। ঋণখেলাপির পরিমাণও বেশি। আর্থিক খাতে ব্যাপক সংস্কার এবং ব্যাংকের সংখ্যা কমিয়ে আনতে বলেছে তারা। আমরা জানিয়েছি বেশ কয়েকটি দুর্বল ব্যাংককে শক্তিশালী ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত করব, তবে সেগুলো অবশ্যই বেসরকারি ব্যাংক। সরকারি ব্যাংক বেশ ভালো করছে। তবে সেগুলোয় বিশেষ অডিট করা হচ্ছে। ফলাফল পাওয়ার পর তাদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। এখন শুধু বেসরকারি ব্যাংক, যেগুলো দুর্বল এবং ঝুঁকিতে আছে; সেগুলো একীভূত করা হবে। সেটা সরকারি ব্যাংকের সঙ্গেও হতে পারে, আবার ভালো বেসরকারি ব্যাংকের সঙ্গেও হতে পারে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ব্যাংক একীভূত হওয়ার নজির আছে। সেজন্য প্রয়োজনে আমরা ব্যাংক কোম্পানি আইন সংশোধন করব। যদি কোনো দুর্বল ব্যাংক একীভূত হতে না চায়, তখন বাংলাদেশ ব্যাংক প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে। ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও শেয়ারবাজার বিষয়ে আইএমএফ ও বিশ্বব্যাংক যেসব সংস্কারের প্রস্তাব দিয়েছে, সরকার সেসব সংস্কার প্রস্তাব বাস্তবায়নে চেষ্টা করবে বলেও জানান তিনি।

জুমবাংলানিউজ/পিএম