খেলা-ধুলা

ক্রিকেটার শাওনকে খুন করতে সন্ত্রাসী ভাড়া করলেন তাঁরই নিজের বাবা !

সিনেমা-নাটকে এমন ঘটনা দেখা যায়। কিন্তু বাস্তবে এমন ঘটনা ঘটে বলে মনে হয় না। বাংলাদেশ যুব দলের সাবেক ক্রিকেটার শাওন গাজী মারতে তার নিজের বাবা সন্ত্রাসী লেলিয়ে দিলেন! যার জন্য হাসপাতাল পর্যন্ত যেতে হয়েছে শাওনকে।

জাতীয় লিগ খেলার জন্য শাওন যখন প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন, ঠিক তখনই এমন হামলার শিকার হন তিনি।

গত ১৩ ডিসেম্বর দুপুরে তাঁর নিজ গ্রাম পটুয়াখালীর খালিশপুরে এমন হামলার শিকার হন তিনি। রনি, রফিক, রুবেল, সৌরভ ও নূর আলম মিলে মারধর করেছে শাওনকে। তাঁর মাথায় ইট দিয়েও আঘাত করে সন্ত্রাসীরা।

এর পেছেনে রয়েছেন শাওনের বাবা মতি গাজী। এ ব্যাপারে তরুণ এই ক্রিকেটার বলেন, ‘পুরো ঘটনাটি ঘটিয়েছেন আমার বাবা মতি গাজী। এর কারণ হচ্ছে, এখন আমি ক্রিকেট খেলে কিছু টাকা আয় করছি, তা আমার বাবার নজরে পড়েছে। আর এই টাকায় ভাগ বসাতে চাইছেন তিনি। তাঁর কথায় রাজি হচ্ছি না বলেই সন্ত্রাসী লেলিয়ে দিয়ে আমার ওপর হামলা চালিয়েছেন।’

অথচ এই বাবাই নাকি শাওনদের খোঁজ খবর নিতেন না। এ সম্পর্কে তরুণ এই ক্রিকেটার বলেন, ‘আমার বাবা দ্বিতীয় বিয়ে করে আমার মাকে রেখে চলে গেছেন। আমরা বড় হয়েছি মামা বাড়িতে। আমার এই অবস্থানে আসার পেছনে তাঁর কোনো অবদান ছিল না। অথচ এখন আমার রোজগারে ভাগ বসাতে চাইছেন তিনি।’

সন্ত্রাসীদের কাছেই জানতে পারেন তাঁর বাবা এই ঘটনা ঘটিয়েছেন। এ ব্যাপারে শাওন বলেন, ‘এর আগেও কয়েকবার আমার ওপর এমন হামলা চালিয়েছেন আমার বাবা। কিন্তু বাবা বলে কাউকে কিছু বলিনি, শত হোক আমার জন্মদাতা তো। হয়তো এক সময় বুঝতে পারবেন এমনটা আশা করেছিলাম। কিন্তু তা হয়নি।’

আরও পড়ুনঃ ফাঁসির আগে সাদ্দামের দেয়া সেই ভবিষ্যৎ বাণীই আজ সত্যি হল (ভিডিও)

Add Comment

Click here to post a comment