জাতীয় বিভাগীয় সংবাদ

কুড়িগ্রামে প্রচণ্ড তাপদাহ, অতিষ্ঠ জনজীবন

[better-ads type='banner' banner='1187323' ]

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ও তীব্র তাপদাহে জনজীবন অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। প্রচণ্ড গরমে সাধারণ ও কর্মজীবী মানুষেরা অস্বস্তিতে পড়েছেন। তাপমাত্রা জনিত কারণে শিশু ও বৃদ্ধরা চরম দুর্ভোগে পড়েছেন।

এক দিকে প্রচণ্ড গরম ও অন্যদিকে বিদ্যুতের র্দীঘক্ষণ লোডশেডিং থাকায় জনজীবন অতিষ্ঠ। বুধবার (১২ জুন) বেলা বাড়ার সাথে সাথে প্রচণ্ড তাপমাত্রা বাড়তে থাকে।

রাজারহাট কৃষি আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের তথ্য অনুযায়ী কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিকে তীব্র তাপদাহে কয়েকদিন ধরে ফুলবাড়ী উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের বিভিন্ন হাট-বাজারে মানুষের সমাগম কিছুটা কমেছে। প্রচণ্ড গরমেই ব্যবসায়ী ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধও রেখেছেন। প্রচণ্ড তাপদাহ থেকে একটু স্বস্তি পেতে কেউ কেউ গাছের তলে বাঁশের টং বানিয়ে আশ্রয় নিচ্ছেন। অনেকে আবার ঘন ঘন ঠান্ডা পানিতে গোসল করছেন।

ভ্যান চালক বাবলু মিয়া ও মুসা মিয়া জানান, জীবনের এই প্রথম রৌন্দের তাপমাত্রা বাহে! জীবন-বাঁচার তাগিতে ভ্যান চালিয়ে আমাদের সংসার চলে। গত কয়েকদিন ধরে এত তাপদাহ সহ্য করার মত নয়। পেটে খেলে সব কিছুই সহ্য করতে হয়। প্রচণ্ড গরমেই ভ্যান চালাচ্ছি। এক আট্টা ক্ষ্যাপ মেরে আবার গাছ তলায় ভ্যানের মধ্যেই বসে শুয়ে একটু দম নেই বাহে !

এ প্রসঙ্গে কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার কৃষি আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুবল চন্দ্র সরকার জানান, বৃহস্পতিবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তবে আগামী দুই এক দিনের মধ্যে তাপমাত্রা কমতে পারে বলে জানান তিনি।

জুমবাংলানিউজ/একেএ