অন্যরকম খবর আন্তর্জাতিক

কালনাগিনী নিয়ে আমাদের যত ভুল ধারণা, চিকিৎসাবিজ্ঞান যা বলছে

রেহেনা আক্তার রেখা: আমরা সবাই অসংখ্য ভ্রান্ত ধারণায় বিশ্বাসী। আমরা অনেকে হয়তো এখনো আদিকালের অনেক ভ্রান্ত ধারণা নিজেদের  মাঝে লালন করে থাকি। কিন্তু এইসব ভ্রান্ত ধারণা নিজের মাঝে লালন করা হচ্ছে এক ধরণের বোকামি। তাই সবার উচিত এইসব ভুল ধারণার সম্পর্কে সঠিক তথ্যের সন্ধান করা।

আজকে জুমবাংলার পাঠকদের জন্য এমন একটি ভুল ধারণা সম্পর্কে তুলে ধরবো যা হয়তো আপনি এর আগে জানতেন না। বলছিলাম কালনাগিনী সাপ ছোবল দিলেই মৃত্যু নিশ্চিত এই ভুল ধারণা সম্পর্কে ছোট্ট একটি আয়োজন। আসুন জেনে নেই এর সঠিক তথ্য। কালনাগিনীকে সাধারণত  আমাদের কাছে কালনাগ, কালসাপ, উড়ন্ত সাপ, উড়াল মহারাজ সাপ, সুন্দরী সাপ ইত্যাদি নামে পরিচিত।

এই সাপের তিনটি উপপ্রজাতির সন্ধান পাওয়া যায়। তন্মধ্যে বাংলাদেশে প্রাপ্ত উপ-প্রজাতিটির বৈজ্ঞানিক নাম হচ্ছে Chrysopelea ornata ornatissima ইংরেজিতে এই সাপকে Golden Tree Snake বলা হয়। এই সাপ দিনের বেলায় খাদ্যের সন্ধানে ঘুরে বেড়ায়। সাধারণত বিষাক্ত সাপেরা বিষ, শিকারকে মেরে ফেলার জন্য ব্যবহার করে।

কিন্ত আপনি জেনে অবাক হবেন যে কালনাগিনী সাপ শিকারকে কামড়ে ধরে চূর্ণ-বিচূর্ণ করে ও ঘাড় ভেঙ্গে মেরে ফেলে। এর বিষ খুবই মৃদু, যা একজন মানুষকে কখনই মেরে ফেলতে পারবে না। চিকিৎসাবিজ্ঞানে এই সাপের ছোবলে কারো মৃত্যু হয়েছে বলে জানা যায় না। তাই কাল সাপের ছোবলে কারো মৃত্যু হওয়া নিতান্তই ভ্রান্ত কথা। সুতরাং কালনাগিনীকে এত ভয় পাওয়ার দরকার নেই। সত্যিই আমরা সবাই না জেনে কতইনা ভ্রান্ত ধারণা বিশ্বাস করি।