প্রবাসী খবর

ওমানে কূপে পড়ে লক্ষ্মীপুরের রিয়াজের মৃত্যু

 

জুমবাংলা ডেস্ক: ওমানের একটি গভীর কূপে পড়ে রিয়াজ হোসেন নামে এক বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। বুধবার বেলা ১১টায় ওমানের একটি প্রতিষ্ঠানে কাজ করার সময় কূপে পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি।

নিহত রিয়াজ লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার কালিকাপুর গ্রামের নুরনবী চেয়ারম্যান বাড়ির (ব্যাপারী বাড়ি) নুরুজ্জামান মিয়ার ছেলে। বাবা নুরুজ্জামান মিয়া ও জেঠাতো ভাই পারভেজ হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

মৃত রিয়াজের বাবা নুরুজ্জামান মিয়া জানান, রিয়াজ পরিবারের অভাব অনটন লাঘবের চেষ্টায় গত বছর দুয়েক আগে ফ্রি ভিসায় কাজ করতে ওমানে পাড়ি জমায়। কিন্তু সেখানে যাওয়ার পরও তেমন কোন কাজ না পাওয়ায় তার এক বন্ধুর মাধ্যমে কিছুদিন আগে একটি কৃষি ফার্মে কাজ পায়। সেখানে কাজ করার সময় বুধবার সকালে একটি গভীর কূপে অসাবধানতাবশত পড়ে যায়। খবর পেয়ে স্থানীয় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আমার ছেলে রিয়াজের লাশ উদ্ধার করে।

দুপুরে রিয়াজের মৃত্যুর খবর তার পরিবারকে মোবাইলে নিশ্চিত করেন একই গ্রামের অন্য এক ওমান প্রবাসী। খবর পেয়ে শোকে মুহ্যমান হয়ে পড়েন প্রবাসী বাবা-মা।

নিহত প্রবাসীর মা খুকী বেগম ছেলের মৃত্যুর খবরে সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়েছেন। বাবা নুরুজ্জামান মিয়া ছেলের শোকে কাঁদতে ভুলে গেছেন।

এলাকাবাসী জানান, রিয়াজ খুবই ভদ্র স্বভাবের ছেলে ছিল। কখনো কারো সাথে ঝগড়া ফ্যাসাদে জড়ায়নি। ছোট বেলা থেকে এলাকায় সুনাম ছিল। বেশি দূর পড়ালেখা করতে না পারলেও সংসারের প্রয়োজনে নিজেকে উজাড় করে দিয়েছে রিয়াজ। আজ তার মৃত্যুর খবরে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

জেঠাতো ভাই পারভেজ হোসেন জানান, তার লাশটি দ্রুত বাংলাদেশে আনার জন্য সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মকর্তার দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মাহেনারা পারভীন পান্না জানান, আমি ঘটনাটি শুনেছি। তবে কোন বাড়ির তা এখন বলতে পারছি না।

জুমবাংলানিউজ/ জিএলজি