বিনোদন

এতে লজ্জার কী আছে!

সাধারণ নারীরাই এ সময়ে আড়ালে থাকেন। আর তিনি তো তারকা। কিন্তু কারিনা কাপুর মনে করেন, এটাই তো একজন নারীকে ঈশ্বরের দেওয়া শ্রেষ্ঠ উপহার। একজন নারীই পারেন পৃথিবীতে আরেকটা প্রাণ নিয়ে আসতে। এতে লজ্জার কিছু নেই, লুকানোর কিছু নেই; বরং এ তো গর্বের।

ভারতের মতো রক্ষণশীল সমাজে গর্ভধারণের সময়টা নিয়ে নানা ধরনের বিধিনিষেধ থাকে। তবে এক সাক্ষাৎকারে কারিনা বলেছেন, ‘আমার পেট উঁচু হয়ে আছে, তাতে কী হয়েছে। সেখানে তো একটা বাচ্চা আছে। আর আমি সেটা গর্বের সঙ্গে বয়ে নিয়ে বেড়াচ্ছি।’

পৃথিবীর আলো দেখার অপেক্ষায় থাকা শিশুটির ক্ষতি না করে নিজের স্বাভাবিক কাজ যতটা করা যায়, তা-ই করছেন কারিনা। এই অভিনেত্রীকে নিয়মিতই চোখে পড়ছে বাইরে। বলিউডেও যেটা ঠিক নিয়মিত দেখা যায়নি। এমনকি ঐশ্বরিয়া-কাজল-মাধুরীও প্রায় নিরুদ্দেশ হয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু কারিনা বলছেন, ‘আমি ঠিকই কাজে যাই, আবার বাসায় ফিরি। বসে বসে নিজেকে লুকিয়ে রাখার তো কোনো মানে হয় না।’

ভিডিওঃ মা হারালে মা পাওয়া যায়, কিন্তু বউ হারালে বউ পাওয়া যায় না: চিরঞ্জিত [ভিডিও]

Add Comment

Click here to post a comment