বিনোদন

এটাই শাকিবের ক্যারিয়ারের সেরা ফ্লপ ছবি

গত এক দশকের বেশি সময় ধরে ঢালিউড ইন্ডাস্ট্রিতে একনায়তন্ত্র চালাচ্ছেন শাকিব খান। অধিকাংশ সাউথ ইন্ডিয়ান ছবির কপি হয়া স্বত্বেও নিজের তারকা খ্যাতির জোরে সিনেমা হিট করিয়েছেন সাথে সাথে এই শিল্পকে বাঁচিয়েও রেখেছেন।

সম্প্রতি তার শিকারি, বসগিরি চলচ্চিত্র গুলো তার জন্য নব জন্ম নিয়ে এসেছে। কিন্তু তার মুক্তি পাওয়া শেষ সিনেমা ‘ধূমকেতু’ সেই অনুপাতে দর্শক প্রিয়তা পেতে হোঁচট খেয়েছে।

পরিচালক-প্রযোজক ভেবে ছিলেন শাকিবের জনপ্রিয়তা এখন সব শ্রেণিতে, তাই তার যাচ্ছেতাই ছবিও পাবলিক দেখবে। কিন্তু তাদের ধারণা ভুল প্রমানিত করে শাকিবের ক্যারিয়ারের সেরা ফ্লপ হল এই ‘ধূমকেতু’। সেই সাথে পরিমণির ক্যারিয়ারেরও।

ছবি মুক্তির প্রায় দ্বিতীয় দিন থেকেই হলগুলো দর্শক শূন্যতায় ভুগছে। এদিকে পরিচালক শফিক হাসান বলছেন ‘ধূমকেতু’ দর্শকদের মাঝে সাড়া ফেলেছে। সুপারহিট ছবি হতে যাচ্ছে। শুধু তাই নয়, তিনি এও জানান তার ছবিটির সাফল্যের জন্য এফডিসিতে তাকে সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। তবে এফডিসিতে শফিক হাসানকে ‘সংবর্ধনা’ দেয়ার কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

বরং বছরের সবচেয়ে ব্যার্থ ছবির তালিকায় এর নাম উঠেছে। পরিচালকের এমন মিথ্যা প্রচারণার জন্য তাকে নিন্দা করছেন অনেক প্রবীণ পরিচালকরা।

এদিকে শাকিব-পরীর এই ছবিটি ভরাডুবির কারণ হিসেবে দায়ী করা হচ্ছে ছবির দুর্বল নির্মাণ ও মানহীন গল্প। ছবিটির সংলাপেও কোনো শৈল্পিকতা নেই। গানগুলোর দৃশ্যায়নও বেশ দুর্বল। তাছাড়া বিভিন্ন সময়ে শুটিং হওয়ায় নায়ক ও নায়িকার শারীরিক গঠন, চুলের স্টাইল প্রায় সব কিছুই ছিলো একেক দৃশ্যে একেক রকম। যা দর্শককে খুব বিরক্ত করেছে।

পূর্ণিমা, মধুমিতা, শাহীন, জোনাকীসহ আরো বেশ কিছু সিনেমা হলে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে হলে আসছেন না দর্শক। এতে করে হল মালিকরা বেশ মোটা অংকের লোকসান গুনতে চলেছেন।

প্রসঙ্গত, ৯ ডিসেম্বর দেশব্যাপী ১০৩টি হলে মুক্তি পায় ‘ধূমকেতু’ ছবিটি। ছবিতে শাকিব খান ছাড়াও অভিনয় করেছেন পরীমণি, তানহা তাসনিয়া।

ভিডিওঃ যে কারনে আমেরিকা রাশিয়াকে চোখ রাঙাতে ভয় পায়। দেখুন রাশিয়ার সামরিক শক্তি (ভিডিও)

Add Comment

Click here to post a comment