জাতীয়

এক মিনিটেই খালেদাকে যা বলার বলে দিয়েছেন ফখরুল

ফাইল ছবি

জুমবাংলা ডেস্ক : বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে বৃহস্পতিবার ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের আদালতে গিয়েছিলেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

কিন্তু আদালত অনুমতি না দেওয়ায় খালেদা জিয়ার সঙ্গে সেখানে দেখা হয়নি তার। তবে খালেদাকে আদালত থেকে বের করে নেওয়ার সময় এক মিনিটের মতো কথা বলার সুযোগ পান বিএনপি মহাসচিব।

খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা বলছেন, ওই ১ মিনিট সময়ের মধ্যেই খালেদা জিয়াকে সংলাপ বিষয়ে বার্তা দিতে পেরেছেন মির্জা ফখরুল। এরপরই খালেদা জিয়াকে আদালত কক্ষ থেকে বের করে কারাগারের ভেতরে নিয়ে যাওয়া হয়।

পরে মির্জা ফখরুল এ বিষয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ম্যাডাম খালেদা জিয়াকে অসুস্থ অবস্থায় অন্যায়ভাবে জোর করে হাসপাতাল থেকে রিলিজ করে আদালতে হাজির করা হয়েছে। আমরা জানতে পেরেছি, পিজি হাসপাতালে যারা খালেদা জিয়ার মেডিকেলের দায়িত্বে
ছিলেন, তারা তাকে ছাড়পত্র দেননি এবং তারা বলেছেন, তিনি খুব অসুস্থ। এ অবস্থায় তাকে কারাগারে নিয়ে যাওয়া ঠিক নয়, তার চিকিৎসা চলছে।

এ সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘খালেদা জিয়ার চিকিৎসার দায়িত্বে যারা ছিলেন, তারা ছাড়পত্র দিয়েছেন বলে আমরা জানি না। শুনেছি, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ যে কাউকে দিয়ে ছাড়পত্র লিখিয়ে নিয়েছে। এটা সম্পূর্ণভাবে
আনইথিকেল কাজ।

ফখরুল আরও বলেন, ‘তাকে (খালেদা জিয়া) দেখেছি, তিনি অত্যন্ত অসুস্থ। হুইল চেয়ারে করে তাকে নিয়ে আসা হয়েছে। হুইল চেয়ারেও তিনি ঠিকমতো বসতে পারছেন না। আমরা আদালতের কাছে অনুমতি চেয়েও দেখা করার অনুমতি পাইনি।’

খালেদা জিয়ার সঙ্গে মির্জা ফখরুলের আদালতে ১ মিনিট কথার বিষয়বস্তু সম্পর্কে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক খালেদা জিয়ার এক আইনজীবী জানান, ‘সংলাপের বিষয়ে ম্যাডাম খালেদা জিয়াকে যা বার্তা দেওয়ার তা এক মিনিটেই মির্জা ফখরুল ইসলাম দিয়ে দিয়েছেন।

জুমবাংলানিউজ/এসএস