খেলা-ধুলা

এক মাসের মধ্যে মেসিকেও কেনা সম্ভব!

এক সময় মনে করা হতো বড় বড় ফুটবলারদের বাই আউট ক্লজ পরিশোধ করে তাদের কেনা অসম্ভব। একজন ফুটবলারের পেছনে হাজার হাজার কোটি টাকা ব্যায়ের চিন্তাও তো অনেকেই করার সাহস পেত না।

কিন্তু নেইমারের বার্সা থেকে পিএসজিতে ট্রান্সফার সব কিছুই এখন সম্ভব করে দিয়েছে। ২২২ মিলিয়ন বাই আউট ক্লজ পরিশোধ করে ব্রাজিলিয়ান এই সুপারস্টারকে পিএসজি কিনে নেয়ার পর সবাই বিশ্বাস করতে শুরু করে দিয়েছে, এখন লিওনেল মেসি কিংবা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকেও বাই আউট ক্লজ পরিশোধ করে কেনা সম্ভব।

লিভারপুল কোচ ইয়ুর্গেন ক্লুপ বিশ্বাস করেন, বাই আউট ক্লজ পরিশোধ করে আগামী এক মাসের মধ্যে লিওনেল মেসিকেও কেনা সম্ভব। বার্সেলোনা মেসির বাই আউট ক্লজ নির্ধারণ করেছে ৩০০ মিলিয়ন ইউরো।

ক্লুপ বিশ্বাস করেন, নেইমারের ২২২ মিলিয়ন ট্রান্সফারের ঘটনার পর এখন মনে হচ্ছে ট্রান্সফার মার্কেটে যে কোনো কিছু সম্ভভ। ডিএজেডএনকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে লিভারপুলের জার্মান কোচ বলেন, ‘আমরা আগে যা অসম্ভব মনে করতাম, এখন তো দেখি সবই সম্ভব।’

মেসিকে কেনার কথা উল্লেখ করে ক্লুপ বলেন, ‘বার্সেলোনা লিওনেল মেসির বাই আউট ক্লজ নির্ধারণ করে দিয়েছে ৩০০ মিলিয়ন ইউরো। আমার বিশ্বাস এক মাসের মধ্যেই তাকে কেনা সম্ভব।’

৩০০ মিলিয়ন (৩ হাজার কোটি টাকা প্রায়) ইউরো? এতবড় পরিমাণে অর্থ কে ব্যায় করবে? ক্লুপ বলেন, ‘যদিও এই সংখ্যাটা শুনতে মনে হবে বিতর্কিত কিংবা অসম্ভব। এক সময় মনে হতো এই পর্যায়ে কারও পৌঁছা সম্ভব নয়; কিন্তু নেইমারের ট্রান্সফার এখন সব কিছুকেই সম্ভব করে দিয়েছে।