slider জাতীয়

এই সেই ৫০০ কোটি টাকার রাজ প্রাসাদ যার মালিক আজ গ্রফতার হয়েছে

এক একর জমিতে ১০ বছর ধরে প্রায় ৫০০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত রাজ প্রাসাদ নির্মাণ করেন ব্যবসায়ী সাখাওয়াত হোসেন টুটুল। বগুড়ার মোকামতলার দেউলি সরকারপাড়ায় তার এ বাড়ি। সম্প্রতি একটি ব্যাংকের ঋণখেলাপির মামলায় গ্রেফতার হওয়ায় তিনি আলোচনায় এসেছেন।

ঢাকার মতিঝিল থানার ওই মামলায় গ্রেফতার হওয়ার পর তাকে কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সোমবার বিকালে মামলার বাদী ও তদন্তকারী কর্মকর্তা দুদক বগুড়া সমন্বিত কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আমিনুল ইসলাম ও স্থানীয়রা জানান, ব্যবসায়ী সাখাওয়াত হোসেন টুটুল বগুড়ার মোকামতলা বন্দরের কাছে দেউলি সরকারপাড়ায় দেশি-বিদেশি মূল্যবান পাথর দিয়ে প্রাসাদ আদলে বাড়ি নির্মাণ করেছেন।

এলাকার লোকজন এটিকে টুটুলের বাড়ি বলে জানেন। ২০০৬ সাল থেকে ১০ বছর সময়ে এক একর জমিতে প্রাসাদটি নির্মাণ করতে প্রায় ৫০০ কোটি টাকা ব্যয় হয়েছে।

টুটুলের ঢাকার ধানমন্ডিতে অক্সফোর্ড ইন্টারন্যাশনাল স্কুল, গাজীপুরে টাটকা ফুড প্রোডাকশন ফ্যাক্টরি, এএইচজেড কোল্ড স্টোরেজ, ইটভাটা এবং এএইচজেড ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনসহ কিছু ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

তিনি রূপালী ব্যাংক ঢাকার দিলকুশা শাখা থেকে ৯৩ কোটি টাকা ঋণ নেন। এ ঋণের টাকা কোনো কাজে ব্যয় বা ব্যাংকে পরিশোধও করেননি।

ঋণখেলাপির ঘটনায় দুদকের সহকারী পরিচালক আমিনুল ইসলাম তার বিরুদ্ধে মতিঝিল থানায় মামলা করেন। সম্প্রতি তাকে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

দুদক কর্মকর্তা আরও জানান, ব্যবসায়ী সাখাওয়াত হোসেন টুটুলের স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তির হিসাব চাওয়া হলে তিনি তা দাখিল করেছেন। এর যাচাই ও তদন্ত চলছে। এতে কোনো অসঙ্গতি পেলে তার বিরুদ্ধে এ ব্যাপারেও মামলা হবে।