অন্যরকম খবর আন্তর্জাতিক

এই তরুণীকে ধরিয়ে দিলেই ১০ লাখ ডলার পুরষ্কার

মেয়েটির নাম জোয়ানা পালানি। বয়স ২৩ বছর। তিনি ডেনমার্কে বসবাস করা এক কুর্দি তরুণী। ২০১৪ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়াশোনা ছেড়ে দিয়ে তিনি কুর্দিদের পক্ষ নিয়ে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) বিপক্ষে লড়াইয়ে যোগ দেন। এতেই চটেছে আইএস। সম্প্রতি আইএস এই তরুণীর মাথার দাম ঘোষণা করেছে ১০ লাখ ডলার।

দ্য ইনডিপেনডেন্টের বরাত দিয়ে পিটিআইয়ের খবরে বলা হয়েছে, বর্তমানে জোয়ানা ডেনমার্কে আছেন। নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে সিরিয়া ও ইরাক অঞ্চলে গিয়ে আইএসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার অভিযোগে তাঁর বিচার চলছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তাঁর দুই বছরের কারাদণ্ড হতে পারে।

কুর্দিদের পক্ষে লড়াই করে এই তরুণী ডেনমার্কে ফেরার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও প্রকাশ্যে নানা হুমকি পাচ্ছেন। এই হুমকির তালিকায় সর্বশেষ যুক্ত হলো আইএস। আইএস তাদের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমসহ বিভিন্ন নিজস্ব ওয়েবসাইটে জোয়ানাকে হত্যার জন্য ১০ লাখ ডলার পুরস্কার ঘোষণা করে।

এসব হুমকির জবাবে জোয়ানা তাঁর ফেসবুক পেজে লিখেছেন, ‘আইএসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার জন্য যে বাহিনীকে ডেনমার্ক প্রশিক্ষণ দিয়েছে ও সহযোগিতা করেছে, সেই বাহিনীর হয়ে যুদ্ধ করে কেন হুমকির মুখে পড়তে হবে আমাকে?’

জোয়ানার পরিবারের আদি বাড়ি ইরানের কুর্দিস্তানে। প্রথম উপসাগরীয় যুদ্ধের সময় ইরাকের রামাদির এক শরণার্থীশিবিরে তাঁর জন্ম। পরে তাঁর পরিবার ডেনমার্কে আশ্রয় চেয়ে আশ্রয় পান। ২০১৪ সালে কুর্দি বাহিনীর পক্ষে লড়তে যাওয়ার আগে তিনি ডেনমার্কের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে পড়াশোনা করতেন। সেটি বাদ দিয়ে তিনি আইএসের বিপক্ষে লড়তে ডেনমার্ক ছাড়েন।

এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে জোয়ানা বলেন, ডেনমার্কের একজন নারী হিসেবে তিনি গণতন্ত্র, নারী অধিকার বিষয়ে ইউরোপের যে দর্শন শিখে বড় হয়েছেন, সেটি দিয়ে অনুপ্রাণিত হয়ে কুর্দিদের পক্ষ নিয়ে লড়েছেন।

ভিডিওঃ প্রাচীন সীমানা পিলার এর দাম কোটি টাকা হয়ে থাকে কেন ,পিলে চমকানো সত্যটি দেখুন আজ

Add Comment

Click here to post a comment