খেলা-ধুলা

উইকেট নিয়ে সত্য বলে বিপদে পড়লেন তামিম!

ঘটনার সূত্রপাত গত শনিবার রংপুর রাইডার্স-কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ম্যাচে। ওই ম্যাচ শেষে মিরপুরের উইকেট নিয়ে হতাশা জানিয়েছিলেন দুই অধিনায়ক। মাশরাফি বলেছিলেন এই উইকেট গ্রহণযোগ্য নয়, তামিমের ভাষায় উইকেট ‘জঘন্য’। উইকেট নিয়ে এমন মন্তব্য ভালোভাবে নেয়নি বিসিবি। তামিমকে দেওয়া হয়েছে কারণ দর্শনার নোটিশ। এই ঘটনায় বিপিএলে তামিমের কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিনের শিষ্যের পাশেই দাঁড়িয়েছেন।

সেদিন আগে ব্যাট করে মাত্র ৯৭ রানে গুটিয়ে যায় রংপুর। ওই রান তুলতেও শেষ ওভার পর্যন্ত খেলতে হয়েছে কুমিল্লাকে। উইকেটে ছিল অসমান বাউন্স। কোন বল হাঁটুর নিচ দিয়ে গিয়ে ভেঙ্গেছে স্টাম্প। গুডলেন্থের বলও আবার পিংপং বলের মতো লাফিয়ে ফাঁকি দিয়েছে উইকেটকিপারকে।

বিসিবি সূত্রে জানা গেছে, কড়া সমালোচনা করায় শোকজ নোটিশ পেয়েছেন তামিম। তাকে ডেকে পাঠানো হয়েছে শুনানির জন্য। উইকেট নিয়ে মাশরাফিও সমালোচনা করেছিলেন, তবে শোকজ কেবল তামিমকেই। তামিমের সমালোচনার ভাষা নাকি পছন্দ হয়নি বিসিবির। তবে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন মনে করেন শোকজ পাওয়ার মতো কোন মন্তব্য করেননি তামিম, ‘আমি জানি না তামিম চিঠি হাতে পেয়েছে কিনা। আমার মনে হয় তামিম সত্য কথাই বলেছে। তার অধিকার আছে সত্য কথা বলার।’

উইকেটে অসমান বাউন্সের সমালোচনা করেছেন সালাউদ্দিন নিজেও। দুইরকম বাউন্সের উইকেটে টি-টোয়েন্টি একদম আদর্শ নয় বলে মত তার, ‘উইকেট একদম ভাল ছিল না। সে কোন খারাপ কথা বলেনি। তামিম একদম ঠিক কথাই বলেছে। এখন সত্য কথা বলার জন্য যদি কোন বিপদ হয় তাহলে আসলেই কিছু বলার নাই।  ’

সেদিন ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে তামিম বলেছিলেন, ‘ক্রিকেট বোর্ড বলেন, আমরা খেলোয়াড়রা বলেন- সবাই চাই বিপিএল পরের ধাপে যাক। পরের ধাপে যাওয়ার জন্য উইকেটটা ঠিক থাকতে হবে। এমন জঘন্য উইকেটে যদি ক্রিকেট খেলা হয়… আজকে আমি হারতে পারতাম হারলেও আমি এই কথাই বলতাম, আজকে জিতছি দেখেও আমি এই কথা বলছি। কী কারণে ওরা এমন উইকেট প্রস্তুত করছে আমার কোনো ধারণা নাই।

প্রধান কিউরেটর গামিনি ডি সিলভার সমালোচনায় করে কুমিল্লা অধিনায়ক বলেছিলেন, ‘আমার প্রশ্ন আপনাদের কাছে, সব সময় যে (গামিনি সিলভা) একটা অজুহাত দেয়, এখানে প্রচণ্ড পরিমানে খেলা হয়- এখানে ১০ দিন কোনো খেলা হয়নি। ১০ দিন খেলা না হওয়ার পর এই উইকেট, হেহ।’

তামিমকে শোকজ পাঠালেও বিপিএলের গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচীব ইসমাইল হায়দার মল্লিক অবশ্য স্বীকার করে নেন, এই উইকেট টি-টোয়েন্টির জন্য আদর্শ না। তবে উইকেটকে তিনি একেবারেই জঘন্য মানতেও রাজী নন।



সর্বশেষ খবর