slider খেলা-ধুলা

আহত তামিম, পেটে চার সেলাই

আউট হয়ে ড্রেসিং রুমে এসে ব্যাট-গ্লাভস ছুড়ে ফেলে দেয়া, হতাশায় বাথরুমের দরোজায় আঘাত করা এগুলো ক্রিকেটারদের সহজাত প্রবৃত্তি। সে আলোকে এগুলো নিত্য দিনকার ঘটনা। এমন ম্যাচ খুব কম যাতে ড্রেসিং রুমে এমন হতাশা ও ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ ঘটে না।

চট্টগ্রামে জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের জাতীয় দলের তিন দিনের ম্যাচের দ্বিতীয় দিন ( ১০ আগষ্ট বৃহষ্পতিবার) অমন এক ঘটনাই ঘটেছে। তবে অন্য ঘটনাগুলোর সঙ্গে ৭২ ঘণ্টা আগের ঘটনার পার্থক্য হচ্ছে, সেদিন একটা দুর্ঘটনা ঘটেছে। যার শিকার দেশের এক নম্বর ওপেনার তামিম ইকবাল।

২৯ রানে রান আউট হয়ে ড্রেসিং রুমের দরজার কাঠের ফ্রেমে ব্যাট দিয়ে আঘাত হানেন তামিম ইকবাল। কিন্তু বিধি বাম! ড্রেসিং রুমের দরোজার কাঁচ আগলা থাকায় তা পড়ে যায় দেশের এক নম্বর ওপেনারের পেটে। আর তাতেই পেট কেটে যায়। চারটি সেলাইও দিতে হয়।

তামিমের ইনজুরি কি খুব গুরুতর? পেটের এ ক্ষত সাড়তে সময় লাগবে? প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু অবশ্য এ ইনজুরিকে গুরুতর মানতে নারাজ। রোববার সকালে জাগো নিউজকে মিনহাজুল আবেদিন জানান, ‘নাহ তামিমের ইনজুরি খুব বড় না। সে আমাদের সঙ্গে গতকাল ( শনিবার) চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা এসেছে। মনে হয় না কোন সমস্যা হবে। কয়েক দিনের মধ্যেই সেড়ে উঠবে। প্র্যাকটিসও করতে পারবে।’

Advertisements