জাতীয় স্লাইডার

আহতদের জন্য যে ঘোষণা দিল ইউএস বাংলা

নেপালের বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় যাঁরা আহত হয়ে কাঠমান্ডুর বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন, তাঁদের চিকিৎসার সব খরচ ইউএস বাংলা বহন করবে।

মঙ্গলবার (১৩ মার্চ) সকালে গণমাধ্যমকে দেওয়া এক বিবৃতিতে এ তথ্য দেন প্রতিষ্ঠানটির জনসংযোগ বিভাগের মহাব্যবস্থাপক কামরুল ইসলাম।

দুর্ঘটনায় নিহত ও আহত যাত্রীদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার বিষয়ে কামরুল ইসলাম বলেন, আমাদের একটা টিম কাঠমান্ডুতে পৌঁছে গেছে। আমরা সহজে এখন সব কিছু করতে পারব। আমাদের সিনিয়রদের সিদ্ধান্ত ছিল সমস্ত ডেডবডি এবং যারা আহত হয়েছে, তাদেরকে দ্রুত নিয়ে আসবে। তাদের চিকিৎসার খবরও নেয়া হচ্ছে। আমাদের ঘোষণা হলো ইউএস বাংলার খরচে সবার চিকিৎসা করা হবে।

যাত্রীদের বিমার বিষয়ে জানতে চাইলে ইউএস বাংলার কর্মকর্তা বলেন, প্রত্যেকটা এয়ারক্রাফটের ইন্সুরেন্স কাভারেজ থাকে। নিশ্চয় এই ফ্লাইটের সব যাত্রীর ইন্সুরেন্স করা ছিল। সে অনুপাতেই ম্যানেজমেন্ট দেবে।

অন্য এক প্রশ্নের জবাবে কামরুল বলেন, ক্ষতিপূরণ ম্যানেজমেন্টের ডিসিশন। তবে এ বিষয়ে নানা প্রক্রিয়া আছে। ইট উইল টেক টাইম।

প্রতিষ্ঠানের বিমান পরিচালনায় এই দুর্ঘটনার কী প্রভাব পড়েছে-জানতে চাইলে কামরুল ইসলাম বলেন, সব ফ্লাইট নরমাল সিডিউল অনুযায়ী চলছে। কিছুক্ষণ আগেও সকালে একটি ফ্লাইট ছেড়ে গেছে।

অন্য এক প্রশ্নের জবাবে ইউএস বাংলা কর্মকর্তা বলেন, মানুষের মধ্যে আতঙ্ক কাজ করতে পারে। তবে গত সাতে তিন বছরে ইউএস বাংলা ৩৬ হাজার ফ্লাইট পরিচালনা করেছে। বাংলাদেশে ইউএস বাংলা একটি নিরাপদ প্রতিষ্ঠান হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলেছে। একটা এক্সিডেন্ট যে কোনো সময়, যে কোনো কারণে হতে পারে। এ জন্য একটি প্রতিষ্ঠান ধ্বংস হতে পারে না। এ বিষয়ে আমরা আপনাদের (গণমাধ্যমের) সহযোগিতা চাই।

এই দুর্ঘটনায় নেপালি কর্তৃপক্ষ ৫০ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করলেও ইউএস বাংলা এখনও তা নিশ্চিত করছে না। কামরুল ইসলাম বলেন, আমাদের কাছে আট জনের ম্যাসেজ আছে। অথেনটিক তথ্য ছাড়া আমরা আপনাদেরকে জানাতে পারি না। তবে নেপালের বিভিন্ন গণমাধ্যমে ৪৯ জনের তথ্য আছে। যেহেতু আমাদের একটি টিম এখন কাঠমান্ডুতে পৌঁছে গেছে, আপনাদেরকে আমরা এখন সঠিক তথ্য জানাতে পারব।

উল্লেখ্য, নেপালের কাঠমান্ডুতে গতকাল দুপুরে বিধ্বস্ত হওয়া ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের উড়োজাহাজটিতে ৬৭ জন যাত্রী ও ৪ জন ক্রু ছিলেন। উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত পাইলট ক্যাপ্টেন আবিদ সুলতানসহ ৫০ জন নিহত হয়েছেন।

জুমবাংলানিউজ/ জিএলজি