বিনোদন

আমার কাছে সবই স্পেশাল

আমার কাছে সবই স্পেশাল। আমি এখন যে নাটকে কাজ করছি এর নির্মাতার নাম হচ্ছে সাহেল সুমন। এ নাটকটি যদি স্পেশাল না মনে করি তাহলে আমার জন্য সেটা অসততা হয়ে যাবে। আমি তা চাই না। আমি আমার প্রফেশনটাকে অনেক সম্মান করি। আর সেটা কিছুতেই যেন নষ্ট না হয় সে দিকটাই খেয়াল করি। -এমনটাই বলছিলেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী জাকিয়া বারী মম। গত কয়েকদিন ধরে এক খণ্ডের বেশ কিছু নাটক নিয়ে ব্যস্ত আছেন তিনি। আর সেগুলো আসছে পহেলা ফাল্গুন, ভালোবাসা দিবস, একুশে ফেব্রুয়ারিসহ বিশেষ দিনগুলোকে ঘিরেই করছেন মম। বিশেষ নাটকের কাজ করছেন এমন প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়েই তিনি সব ‘স্পেশাল’ বলে আখ্যা দিয়েছেন। গতকাল মম সাহেল সুমনের নির্দেশনায় খণ্ড নাটক ‘পেন ফ্রেন্ড’-এর শুটিং শেষ করেছেন। এতে তার বিপরীতে আছেন নিলয়। এছাড়া চলতি ও আগামী মাসজুড়ে থাকবে একখণ্ড নাটক ও টেলিছবির ব্যস্ততা। পাশাপাশি তিনটি ধারাবাহিকের কাজও করছেন মম। এসব নাটকের মধ্যে রয়েছে- শিহাব শাহীনের নির্দেশনায় ‘লিপস্টিক’, ফেরদৌস হাসান রানার নির্দেশনায় ‘মায়া’ ও হিমেল আশরাফের নির্দেশনায় ‘অনেকের মাঝে আমি একা’। টিভি পর্দার পাশাপাশি মম কাজ করছেন চলচ্চিত্রেও। এরই মধ্যে তানিম রহমান অংশুর পরিচালনায় ‘স্বপ্নবাড়ি’ ছবির শুটিং শেষ করেছেন। এর কিছু অংশের কাজ বাকি আছে বলেও জানান তিনি। এছাড়া আসছে নতুন বছরে তিনি শুরু করবেন নিরবের বিপরীতে ‘ভালোবেসে তোর হবো’ চলচ্চিত্রের কাজ। পাশাপাশি আরো একটি ছবিতে অভিনয় করার কথাও রয়েছে মমর। তবে এখনো তা চূড়ান্ত হয়নি। এদিকে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এ অভিনেত্রীর আজ জন্মদিন। বিশেষ এ দিনে শুটিং নিয়েই ব্যস্ত থাকবেন বলে মম জানিয়েছেন। তেমন বিশেষ কোনো আয়োজন নেই। এ প্রসঙ্গে মম অনেকটা মজাচ্ছলেই বললেন, যার জন্মদিন তার কোনো আয়োজন থাকে না। সে যাদের কাছে স্পেশাল তারা যদি আয়োজন রাখে তাহলে থাকবে। আমার দিক থেকে কিছুই নেই। শুটিংয়ে ব্যস্ত থাকবো। কাজ করবো। আমি কাজে বিশ্বাসী। জন্মটা আসলে কীসের জন্য? কর্মের মাধ্যমে নিজের পরিচয়টা বাঁচিয়ে রাখার জন্য তো। সেজন্যই আমি জন্মদিনে কোনো বিশেষ আয়োজনের মধ্যে থাকতে চাই না। বাসায় বসে থেকে কেক কেটে জন্মদিন পালন করার পক্ষে আমি নেই। বিশেষ এ দিনে কাজের মধ্যে থাকলেও মা আয়েশা আক্‌তারের সঙ্গে দেখা করবেন মম। মমতাময়ী মাকে কিছুটা সময় দেবেন তিনি। এ প্রসঙ্গে মম বলেন, আজ আমার পৃথিবীতে আগমনের দিন। আজকের দিনটিতে আমার মা মা হয়েছেন। তাই আজ আমি যতই ব্যস্ত থাকি না কেন মায়ের সঙ্গে দেখা করবো। মায়ের কোলে মাথা রেখে কিছুটা সময় শান্তিতে কাটাতে চাই। সত্যি বলতে কী মায়ের কারণেই কিন্তু আজকের আমি। তাই নিজের আজকের অস্তিত্বের কথা যখন ভাবি তখন বারবার মায়ের হাসিমাখা মুখাবয়বটিই চোখে ভেসে ওঠে। টিভি নাটকে দীর্ঘদিন অভিনয় করছেন মম। এর ভালো-মন্দ দিক নিয়ে প্রায়ই বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে কথা বলেন তিনি। বর্তমানে বাংলাদেশের টিভি মিডিয়া দুঃসময় অতিক্রম করছে। বিশেষত বিদেশি ধারাবাহিক দেশীয় টিভি চ্যানেলে প্রচার নিয়ে এখন চলছে নানা বিতর্ক। সে সঙ্গে চলছে নানা আন্দোলন কর্মসূচিও। এরই মধ্যে টিভি মিডিয়ার ১৪টি সংগঠন এক হয়ে এফটিপিও নামের একটি সংগঠন গড়ে তুলেছে। আর সেখান থেকেই শিল্পী কলাকুশলী সবাই মিলে বিদেশি সিরিয়াল বন্ধ, নিয়ন্ত্রিত বিজ্ঞাপন প্রচারসহ নানা দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন। এর সহযাত্রী মমও। তিনিও আছেন সেই আন্দোলনে। তবে মম বলেন, টিভি চ্যানেল আমাদের বন্ধু। আমরা এমন একটি জায়গায় কাজ করি যেখানে সবার সবাইকে প্রয়োজন। সে জায়গায় থেকে আমি ব্যক্তিগত ও এফটিপিওর যেটা চাওয়া তা হচ্ছে এমন কিছু করবো যেখানে আমাদের যে দর্শক ক্রাইসিস তৈরি হয়েছে সেখান থেকে উত্তরণ হতে হবে। বিশেষ করে বিদেশি সিরিয়াল বন্ধ করা, বিজ্ঞাপন প্রচারে নিয়ন্ত্রণ নিয়ে আসা, ভালো বাজেট সমৃদ্ধ নাটক তৈরি করা। এসব কথাগুলো নিয়ে অনেক দিন ধরেই আমরা কথা বলে আসছি কিন্তু ফলপ্রসূ কিছু হচ্ছে না। মূলত চ্যানেলের কাছ থেকে এসব দাবিগুলো আমরা করতেই পারি। আমি চাই, সবকিছু যেন ভালোভাবে ও সুন্দরভাবে হয়। আমরা শিল্পী কলাকুশলীরা সবাই চাই নাটকে ভালো দিন ফিরে আসুক।

ভিডিও:বিশ্বের একমাত্র শহর, যেখানকার মানুষ জানেনই না টাকা-পয়সা কী জিনিস দেখুন (ভিডিও)

Add Comment

Click here to post a comment