Exceptional লাইফস্টাইল

আমাদের দেশে যেগুলো সাধারণ ব্যাপার, বিদেশে সেগুলোই বেআইনি, হতে পারে শাস্তিও

সারা পৃথিবী জুড়েই অধেকূদেশ রয়েছে, আর এইসব ভিন্ন ভিন্ন দেশের দেশের নিয়ম কানুন ও ভিন্ন। আপনি যদি কখনো সেইসব দেশে ঘুরতে যান তাহলে কিন্তু, আপনাকেও এইসব নিয়ম মেনে চলতে হবে। আমাদের দেশের লোকজন সবার সামনেই জনসমক্ষে নানারকম কাজকর্ম করে থাকেন, আর বাকিরা সেসব দিকে কখনও নজরই দেন না অথবা দেখলেও পাশ কাটিয়ে চলে যান। আসুন আজ আপনাদের আমি, কয়েকটি দেশের এমন কিছু নিয়মের কথা বলব, যেগুলি শুনলে আপনি রীতিমত অবাক হবেন এবং জানলে অবাক হবেন যে, এইসব দেশে গিয়ে যদি আপনি এই নিয়ম গুলো না মানেন, তাহলে কিন্তু আপনাকে গ্রেপ্তার ও করতে পারে ওই দেশের পুলিশ। এবার আর কথা না বাড়িয়ে আসুন দেখে নেওয়া যাক সেইসব দেশের কিছু নিয়মাবলীগুলো –

1. জনসমক্ষে খাওয়া :- মুসলিম প্রধান দেশ সৌদি আরবে রমজান মাসে প্রায় সবাই রোজা রাখে। এই রোজার সময় যদি কখনো কাউকে রাস্তাঘাটে খেতে দেখা যায় তাহলে তাকে শাস্তি দেওয়া হয়, সেক্ষেত্রে তিনি মুসলিম হোন অথবা অন্য জাতির হলেও তাকে শাস্তি পেতে হয়।
2. রেড লাইট অমান্য করা :- আমাদের ভারতে লাল সিগন্যাল না মেনে এগিয়ে যাওয়াটাকে এখন বাহাদুরি বলেই মনে করা হয়, কিন্তু জানেন কি যে, বাইরের কিছু দেশে আপনি রেড লাইট অমান্য করলেই আপনাকে জরিমানা দিতে হবে, ছাড় পাবেন না আপনিও।

3. হাই হিলস্‌ জুতো পরা নিষিদ্ধ :- গ্রীসের এমন কিছু শহর আছে যেখানে হাই হিলস্‌ জুতো পরা নিষিদ্ধ, কারণ এই হাই হিলের থেকে শহরের রাস্তায় বসানো পাথরগুলি যথেষ্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এছাড়াও কোনো ধর্মীয় স্থানে হাই হিলস্‌ জুতো পরা নিষিদ্ধ, আর যদি কেউ এই নির্দেশ অমান্য করে তাহলে তাঁকে ফাইন দিতে হয়।
4. ফ্লাশ করা :- জানলে অবাক হবেন যে, সুইজারল্যাণ্ডে কিন্তু রাত দশটার পর বাথরুমে ফ্লাশ করা একবারে নিষিদ্ধ, তার কারণ হলো, এই ফ্ল্যাশের আওয়াজে প্রতিবেশীদের ঘুমের অসুবিধা হয়।

5. ভ্যালেন্টাইন ডে পালন :- আমাদের দেশে ভ্যালেন্টাইন ডে রীতিমত ঢাক-ঢোল বাজিয়ে পালন করা হয় ঠিকই, কিন্তু পাকিস্তান, আরব এইসব দেশগুলিতে কিন্তু ভ্যালেন্টাইন ডে পালন করা একদমই ব্যানড। এমনকি এই দুই দেশে ভ্যালেন্টাইনস কার্ড অথবা বেলুন বিক্রি করাও দণ্ডণীয় অপরাধ।
6. ক্যাকটাস কাটা :- আমেরিকার এমন কিছু শহর আছে, যেখানে ক্যাকটাস গাছ কাটা একেবারে নিষিদ্ধ, কারণ ওইসব জায়গায় যেসব গাছকে ধর্মীয় গাছ বলে মনে করা হয়, তাদের মধ্যে এই ক্যাকটাস গাছ হলো অন্যতম।

7. চুইংগাম খাওয়া :- সিঙ্গাপুরে চুইংগাম খাওয়া কিন্তু একেবারে নিষিদ্ধ। এমনকি জানলে অবাক হবেন, এই দেশে বিদেশ থেকেও চুইংগাম আমদানি করা একবারে নিষিদ্ধ। এই দেশে শুধুমাত্র মেডিক্যাল স্টোরগুলি চুয়িংগাম বিক্রি করতে পারে।
8. জগিং করা :- জগিং করা যদিও স্বাস্থ্যর পক্ষে ভালো, তবুও কিছু কিছু শহরে দল বেঁধে জগিং করা একেবারেই নিষিদ্ধ, তার কারণ হলো এর ফলে ছেলেদের মধ্যে মারামারি হতে পারে, তাই এইরকম ব্যবস্থা।
9. উঁচু আওয়াজে গান বাজানো :- হুনুলুলু এমন একটি দেশ যেখানে হাই ভলুউমে গান বাজানো একবারে নিষিদ্ধ।

10. বাল্ব পাল্টানো :- অস্ট্রেলিয়াতে নিজের বাড়ির বাল্ব খারাপ হয়ে গেলে সেটা বদলানোর জন্য আপনাকে কোনো লাইসেন্স প্রাপ্ত ইলেকট্রিক মিস্ত্রিকে ডাকতে হবে, সেই ওই কাজটা করবে, কিন্তু তা না করে আপনি যদি নিজেই তা পাল্টাতে যান, তাহলে কিন্তু আপনাকে ৫০০ টাকা পর্যন্ত জরিমানা দিতে হতে পারে।
11. গালি দেওয়া :- জানেন কি যে, অস্ট্রেলিয়া কেউ যদি গালি দেয় বা খারাপ ভাষা ব্যবহার করে তাহলে তাকে জেলেও যেতে হতে পারে। আমাদের দেশে তো গালি ছাড়া কোনো কাজই হয়না।
12. সারা শরীর ঢেকে রাখা :- কয়েকটি মুসলিম প্রধান দেশ আছে, যেখানে নিয়ম আছে যে মহিলাদের সারা শরীর পোশাক দিয়ে ঢেকে রাখতে হবে নাহলে তাঁদের শাস্তি দেওয়া হতে পারে।

13. মদ্যপান করা :- সৌদি আরবে কিন্তু মদ্যপান একেবারে নিষিদ্ধ। এমনকি এখানে যাতে বাইরে থেকেও কেউ মদ না আনতে পারে সেইজন্য এয়ারপোর্টে কড়া চেকিং-এর ব্যবস্থা আছে, আর যদি কেউ তা অমান্য করে বাইরে থেকে মদ নিয়ে আসে, তাহলে কিন্তু তাঁর কয়েকমাসের জেল হতে পারে।
14. মোটা হওয়া :- জাপানে চল্লিশ বছর বয়সের পর কোনো ব্যক্তির কোমর যদি ৩৫ ইঞ্চির বেশি হয় তাহলে তাঁকে দ্রুত রোগা হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। ২০০৯ সালের নিয়ম অনুযায়ী মেয়েদের কোমর ৩৫ ইঞ্চি এবং ছেলেদের কোমর ৩১ ইঞ্চির বেশি হওয়া যাবে না।
15. পাখিদের খাওয়ানো :- ভেনিসে এমন কয়েকটি জায়গা আছে, যেখানে আপনি যদি পাখিদের খাওয়ানো তাহলে আপনার ৩০০ টাকা পর্যন্ত জরিমানা দিতে হতে পারে। পাখিদের স্বাস্থ্যের কথা মাথায় রেখেই এই নিয়ম চালু করা হয়েছে।

16. সবসময় হাসিমুখে থাকতে হবে :- শুনে রাখুন, আপনি যদি হাসতে একটুও ভালো না বাসেন, তাহলে কিন্তু ভুল করেও কখনো ইতালির মিলান শহরে যাবেন না। এই শহরে সবাইকে সর্বদা হাসিমুখে থাকতে হয়। দুঃখের সময়ও সবাইকে হাসিমুখ থাকতে হয়, তা না হলে জরিমানা দিতে হয়।
17. সিটি বাজানো :- ওন্টারিও-র পেট্রলিও শহরে সিটি বাজানো বা হইচই করা একবারে নিষিদ্ধ, না হলে ফাইন দিতে হয়।
গাড়িতে ধাক্কা দেওয়া :- জার্মানিতে এমন একটি শহর আছে যেখানে গাড়িতে ধাক্কা দেওয়া একবারে নিষিদ্ধ। আপনার গাড়িতে তেল ছিল না সেটা খেয়াল না রাখার জন্য আপনাকে ফাইন দিতে হবে।
18. রেডিওতে গান বাজানো :-কানাডায় রেডিও চ্যানেগুলিকে প্রতি পাঁচটি গানের মধ্যে অন্তত একটি কানাডার গান বাজাতেই হয় নাহলে সেই রেডিও চ্যানেলটিকে ব্যান করা হয়।

19. বাতকর্ম করা :- ফ্লোরিডায় গিয়ে কেউ যদি বুধবার ৬টা বাজার পর বাতকর্ম করে তাহলে তা জনসাধারণের উপর উপদ্রব বলে ধরা হবে।
20. মাতলামি করা :- অস্ট্রেলিয়াতে আপনি যদি কোনো বারে গিয়ে অতিরিক্ত মদ্যপান করে ফেলেন তাহলে আপনাকে ফাইন দিতে হবে, এবং অতিরিক্ত মদ খাওয়ানোর জন্য ওই বার মালিককেও ফাইন দিতে হবে।
21. নামকরণ :- জানেন কি, ডেনমার্কে আপনি আপনার নিজের বাচ্চার নামকরণ করতে পারবেন না, ওখানকার সরকার জনসাধারণকে ৭০০০ নামের একটি তালিকা দিয়ে রেখেছে। সেটি থেকেই আপনাকে আপনার বাচ্চার নাম বেছে নিতে হবে। আর যদি আপনি অন্য কোনো নাম রাখতে চান তাহলে আপনাকে সরকারের অনুমতি নিতে হবে।
22. খাওয়া দাওয়া বারণ :- শিকাগো-তে আশেপাশে কোথাও আগুন লাগলে সেই অঞ্চলের বাসিন্দাদের খাওয়া-দাওয়া বন্ধ করে দিতে হয়, কারণ ওই সময়ে তাঁদের খাওয়া-দাওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি আছে।

জুমবাংলানিউজ/ জিএলজি