আন্তর্জাতিক

আমরা হাতে চুড়ি পরে বসে নেই : মোদিকে হুঙ্কার দিয়ে মমতা

[better-ads type='banner' banner='1187323' ]
ফাইল ছবি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতে লোকসভা নির্বচিনের পর থেকে পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতাসীন দল তৃণমূলের সঙ্গে বিজেপির ঝামেলা লেগেই আছে। দুই দল পরষ্পরকে হুমকি দিয়ে চলেছে। এমনকি হামলা ও পাল্টা হামলার ঘটনাও ঘটছে নিয়মিত। এ প্রেক্ষিতে ওই রাজ্যে রাষ্ট্রপতির শাসন জারির কথাও শোনা যাচ্ছে।

এই প্রসঙ্গে মঙ্গলবার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে হুঙ্কার দিয়ে বলেন, ‘অত সস্তা নয়। বলা খুব সহজ। আগে নিজেদের দলকে ( বিজেপি) নিয়ন্ত্রণ করুক। আমরা কেউ হাতে চুড়ি পরে বসে নেই।’

মঙ্গলবার এক সরকারি অনুষ্ঠানেই তিনি বলেন, ‘রাজ্যপালকে সম্মান করি। কিন্তু তার রাজনৈতিক ভাষণকে নয়। আমি রাজ্যপাল সম্পর্কে কিছু বলতে পারি না। রাজ্যপালও মুখ্যমন্ত্রী সম্পর্কে কিছু বলতে পারেন না। প্রত্যেকেরই সাংবিধানিক সীমাবদ্ধতা রয়েছে।’

সোমবারই একটি বৈদ্যুতিন সংবাদ মাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাজ্যপাল জানিয়েছিলেন, নির্বাচনোত্তর হিংসায় রাজ্যে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে রিপোর্ট দিয়েছেন তিনি। এদিন হেয়ার স্কুলে বিদ্যাসাগরের মূর্তি প্রতিষ্ঠার অনুষ্ঠানে সেই প্রসঙ্গ টেনে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘১০ জন খুন হয়েছেন। রাজ্যপাল বলেছেন ১২ জন। তাহলে কি টার্গেট করে সেই সংখ্যা পূরণ করবে?’

মমতার দাবি, রাজনৈতিক হিংসায় মৃত্যু নিয়ে রাজ্যপাল সঠিক তথ্য দেননি।

এদিন রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে সরব ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। তিনি বলেন, গত ৮ বছরে রাজ্য আমূল বদলে গিয়েছে। কিন্তু একদল মানুষ রাজ্যের বদনাম করতে আইনশৃঙ্খলা অবস্থা খারাপ বলে প্রচার করছে। এটা রাজনৈতিক প্রচার। অর্থনৈতিক উন্নয়ন বা শান্তির বিচারে অন্য যে কোনও রাজ্যের থেকে পশ্চিমবঙ্গের অবস্থা ভালো।

সূত্র: আনন্দবাজার

জুমবাংলানিউজ/এসএস