খেলাধুলা

আফ্রিদিদের কোনো খেলাই দেখাবে না ভারত

ফাইল ছবি

স্পোর্টস ডেস্ক : জম্মু কাশ্মীরে পুলওয়ামার ভয়াবহ জঙ্গি হামলার পর আবারও উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে চিরপ্রতিদন্ধী ভারত-পাকিস্তানের রাজনৈতিক সম্পর্ক। রাজনৈতিক উত্তাপ এবার ছড়িয়ে পড়েছে ক্রিকেটেও। এর জের ধরেই ভারতে বন্ধ করে দেওয়া হলো চলমান পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) সম্প্রচার।

গেল বৃহস্পতিবারের ঘটনা। ভারতশাসিত জম্মু-কাশ্মীর অঞ্চলে বোমা হামলায় দেশটির সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের (সিআরপিএফ) অন্তত ৪০ জন সদস্য নিহত হয়েছেন। মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন আরও বেশ কয়েকজন। সাম্প্রতিক সময়ে ভারতীয় বাহিনীর ওপর এটাই সবচেয়ে বড় হামলা।

ঘটনাক্রমে এদিনই সংযুক্ত আরব আমিরাতে পর্দা উঠেছে পিএসএলের চতুর্থ আসরের। মজার ব্যাপার হলো, এই উত্তপ্ত পরিস্থিতির মধ্যেও পিএসএলের সম্প্রচার স্বত্ব কিনে নিয়েছে ভারতের রিলায়েন্স গ্রুপ! ভারতে পিএসএলের সম্প্রচারের দায়িত্বে ছিল ডি স্পোর্টস। কিন্তু পুলওয়ামায় সিআরপিএফ জওয়ানদের উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় ভারতে পিএসএল সম্প্রচার করতে অস্বীকৃতি জানায় প্রতিষ্ঠানটি।

বৃহস্পতিবার পুলওয়ামার আওয়ান্তিপুরা এলাকায় সিআরপিএফ জওয়ানদের ওপর নৃশংস হামলার প্রতিবাদে পিএসএলের সম্প্রচার বয়কট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ডি স্পোর্টস। এমনটাই জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির এক কর্মকর্তা।

তার ভাষ্য, ‘আমরা পিএসএলের সম্প্রচার বন্ধ করে দিয়েছি। আমরা বিষয়টির গুরুত্ব অনুধাবন করতে পেরেছি। দেশের বিষয়ে আমরা সংবেদনশীল। তবে পিএসএলের সম্প্রচার বন্ধ করার সঙ্গে কয়েকটি প্রযুক্তিগত বিষয় জড়িয়ে আছে। সে বিষয়ে আমরা ভাবছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘শুক্রবার রাত থেকে ভারতে পিএসএলের সম্প্রচার বন্ধ করে দেওয়ার ইচ্ছা ছিল। কিন্তু বিভিন্ন দেশে একসঙ্গে সম্প্রচার করা হচ্ছিল। ফলে এদিন শুধু ভারতে সম্প্রচার বন্ধ করা সম্ভব হয়নি। কিন্তু গতকাল (শনিবার) থেকে ভারতে সম্প্রচার বন্ধ করে দেওয়া সম্ভব হয়েছে।’

পুলওয়ামা জঙ্গি হামলায় গোটা ভারত রীতিমতো কাঁপছে। একইসঙ্গে ক্ষোভে ফুঁসছে দেশবাসী। এ ছাড়া হামলাকারীদের কীভাবে জবাব দেওয়া যায় সেটা নিয়েও চলছে আলোচনা। এরই মধ্যে পাকিস্তানে পণ্য রপ্তানি বন্ধ করে দিয়েছে ভারত। এখানেই শেষ নয়, পাকিস্তান থেকে পণ্য আমদানি বন্ধেও চলছে তোড়জোর। এরই মধ্যে ভারতে বন্ধ করে দেওয়া হলো পিএসএলের সম্প্রচার। তাতে টিভি সম্প্রচার থেকে বড় অঙ্কের মুনাফা হারাতে হচ্ছে পাকিস্তানকে।

জুমবাংলানিউজ/এসওআর