বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি লাইফস্টাইল

আপনার গোপন কথাগুলোও যেভাবে জেনে যায় গুগল!

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক : বিশ্বব্যাপী মানুষের জীবনের সর্বত্র গুগলের বিচরণ। শুধু অনলাইনে ভিডিও দেখা কিংবা সেবা ব্যবহার করে যোগাযোগের জন্যই নয়। এর বাইরেও অনেক কিছুর জন্য মানুষ অন্য প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোর চেয়ে গুগলের ওপর বেশি নির্ভরশীল। বাস্তব জীবনের কার্যক্রমের পাশাপাশি ভার্চুয়ালে কী অনুসন্ধান করেন, আপনার কোন জিনিস পছন্দ আর কোনগুলো নয়, কিংবা আপনি কোন ওয়েবসাইটে যান, তার সবকিছু জানে গুগল। যেসব উপায়ে গুগল আপনার গোপন কথাগুলোও জেনে জেনে যায়, সেগুলো নিয়ে আমাদের আজকের আয়োজন-

অ্যাপ অনুসন্ধান

প্লে স্টোর থেকে শুধু অ্যাপ ডাউনলোডের ক্ষেত্রেই নয়, একজন অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস ব্যবহারকারী প্লে স্টোরে কোন ধরনের অ্যাপের জন্য অনুসন্ধান করেন, তার সব তথ্যই জানে গুগল। অর্থাৎ প্লে স্টোর থেকে অ্যাপ ডাউনলোড না করলেও অনুসন্ধানের তথ্য সংরক্ষণ করে প্রতিষ্ঠানটি। এ ফিচার বন্ধের কোনো উপায় নেই। কারণ একজন অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস ব্যবহারকারীকে প্লে স্টোরে যেতেই হয় প্রয়োজনীয় অ্যাপ ডাউনলোড কিংবা কোনো নির্দিষ্ট কাজের অ্যাপ খোঁজার জন্য।

অ্যান্ড্রয়েড ফোন

আপনি যে অ্যান্ড্রয়েড ফোনই ব্যবহার করেন না কেন, গুগল তার সব তথ্য জানে। একজন গ্রাহক কোন ব্র্যান্ডের ও মডেলের অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করেন, তার বিস্তারিত তথ্য গুগলের কাছে রয়েছে। এমনকি, অ্যান্ড্রয়েড ফোনে ব্যবহূত সিম নম্বর পর্যন্ত গুগলের কাছে রয়েছে। অর্থাৎ একজন অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহারকারীর প্রত্যেক অ্যাক্টিভিটিতে বিচরণ রয়েছে গুগলের। আপনি কাকে কল করছেন, কখন কোথায় যাচ্ছেন, কোন ওয়েবসাইটে ব্রাউজ করছেন, তার সব তথ্যই জানে গুগল।

জিমেইল

গুগলের ইমেইল সেবা জিমেইল ব্যবহার করে আপনি কী ধরনের তথ্য আদান-প্রদান বা আলোচনা করছেন, তার সবই জানে গুগল। এসব গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সংগ্রহকে অত্যন্ত ভয়ংকর মনে করা হয়। তবে গুগল বরাবরই দাবি করে আসছে জিমেইল ব্যবহারকারীর তথ্য সংরক্ষণ করা হলেও, তা কোনো পরিস্থিতিতেই তৃতীয় কোনো পক্ষের কাছে সরবরাহ করা হয় না। এমনকি, আইন প্রয়োগকারী সংস্থার চাপের মুখেও এ ধরনের তথ্য সরবরাহ করা হয় না।

জিমেইল কনট্যাক্ট

জিমেইল ব্যবহারকারীর কনট্যাক্ট লিস্টে সার্বক্ষণিক নজরদারি করে আসছে গুগল। বিশেষ করে, একজন জিমেইল ব্যবহারকারী যাদের সঙ্গে ধারাবাহিকভাবে তথ্য আদান-প্রদান এবং যোগাযোগ রক্ষা করেন তার সব তথ্যই রয়েছে গুগলের কাছে। একই সঙ্গে প্রতিষ্ঠানটি সেসব মানুষের সম্পর্কেও বিস্তারিত জানেন, একজন জিমেইল ব্যবহারকারী যাদের সঙ্গে সবচেয়ে বেশি পারস্পরিক যোগাযোগ রাখেন।

ইউটিউব

গুগলের ভিডিও শেয়ারিং সাইট ইউটিউব। সেবাটিকেও ব্যবহারকারীদের তথ্য সংগ্রহের অন্যতম হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে আসছে গুগল। ইউটিউবে একজন গ্রাহক কোন ধরনের ভিডিও বেশি অনুসন্ধান করেন বা দেখেন, তার সব তথ্য জানে গুগল। পাশাপাশি সপ্তাহে কিংবা মাসে একজন গ্রাহক কী পরিমাণ ভিডিও দেখছে, তার তালিকাও প্রতিষ্ঠানটির কাছে রয়েছে।

সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া

জুমবাংলানিউজ/পিএম