বিনোদন

অসময়ে হারিয়ে যাওয়া বলিউডের ১০ তারকা

তাদের আগমন সাড়া জাগিয়েছিল বলিউডে। কাজের মাধ্যমে জয় করে নিয়েছিলেন কোটি দর্শকের মন। কিন্তু সবাইকে কাঁদিয়ে অকালে ঝরে যান তারা। বলিউডের এমন ১০ তারকার কথা তুলে ধরা হলো পাঠকদের জন্য-

মধুবালা

১৯৬৯ সালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় বলিউডের বিখ্যাত অভিনেত্রী মধুবালার। ৩৬ বছর বয়সেই চিরতরে চলে গিয়েছেন মধুবালা।

মীনা কুমারী

জীবনের সেরা ছবি ‘পাকিজা’ মুক্তির তিন সপ্তাহ পরেই মৃত্যু হয় মীনা কুমারীর। মাত্র ৩৯ বছর বয়সে সিরোসিস অব লিভারে‌ আক্রান্ত হয়ে মারা যান অভিনেত্রী।

সঞ্জীব কুমার

বলিউডের অন্যতম ভার্সেটাইল অভিনেতা। ১৯৮৫ সালে মাত্র ৪৭ বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান সঞ্জীব কুমার।

স্মিতা পাতিল

আর্ট ফিল্ম ও বাণিজ্যিক, ছবির দুই ধারাতেই চূড়ান্ত সফল। ১৯৮৬ সালে মাত্র ৩১ বছর বয়সে ছেলে প্রতীক বব্বরের জন্মের সময় মৃত্যু হয় স্মিতা পাতিলের।

বিনোদ মেহরার

সাত-আটের দশকের জনপ্রিয় নায়ক। ১৯৯০ সালে মাত্র ৪৫ বছর বয়সে মৃত্যু হয় বিনোদ মেহরার। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান তিনি।

আমজাদ খান

বলিউডের ‘গব্বর’। ১৯৯২ সালে মাত্র ৫১ বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় আমজাদ খানের।

দিব্যা ভারতী

মাত্র ১৯ বছর বয়সে মর্মান্তিক মৃত্যু। ১৯৯৩ সালের ৫ এপ্রিল মৃত্যু হয় দিব্যা ভারতীর। তবে মৃত্যুর কারণ আজও রহস্য।

জিয়া খান

২০১৩-য় আত্মঘাতী হন অভিনেত্রী জিয়া খান। মাত্র ২৫ বছর বয়সে মারা যান অভিনেত্রী।

লক্ষ্মীকান্ত বোর্দে

মাত্র ৫০ বছর বয়সেই মৃত্যু হয় লক্ষ্মীকান্ত বোর্দের। ২০০৪ সালে কিডনির রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান অভিনেতা।