অর্থনীতি-ব্যবসা জাতীয় পুঁজিবাজার স্লাইডার

অবশেষে সব ধরনের জটিলতার অবসান, শেয়ারবাজারে ঢুকছে চীনা ফান্ড

এম রহমান : অবশেষে সব ধরনের জটিলতার অবসান ঘটিয়ে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ডিএসইতে আজ চীনের ফান্ড ঢুকছে। গতকাল প্রজ্ঞাপনটিতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভুইয়া স্বাক্ষর করেছেন। আর এর মধ্য দিয়ে ব্রোকারেজ হাউজের মালিকেরা আজ থেকে এই অর্থ পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করতে পারবেন ।

ডিএসইর সূত্রে জানা গেছে, আজ থেকে দেশের শেয়ারবাজারে চীনা ফান্ডের বিনিয়োগে কোনো বাধা নেই। এই ফান্ডের বিনিয়োগ বাজারচিত্র কিছুটা হলেও বদলে দেবে।

প্রসঙ্গত, চীনের দুই স্টক এক্সচেঞ্জের কাছে ডিএসইর ২৫ শতাংশ শেয়ার বিক্রিবাবদ ৯৪৬ কোটি ৯৮ লাখ ২৬ হাজার ৬৪৫ টাকা পাওয়া গেছে। এখান থেকে প্রাপ্ত সব অর্থ পুঁজিবাজারে টানতে সরকারের পক্ষ থেকে ১০ শতাংশ করছাড় দেওয়া হয়েছে। তবে শেয়ারহোল্ডারদের এই অর্থ তিন বছর পুঁজিবাজারে রাখার শর্ত দেওয়া হয়েছে।

ডিএসইর একটি নির্ভরশীল সূত্রে জানা গেছে, চীনের এই অর্থ শেয়ারবাজারের গতি ইতিবাচক রুপ দেবে। এরই মধ্যে ডিএসই থেকে হাউজ মালিকদের এই অর্থ কীভাবে বিনিয়োগ হবে সে সম্পর্কে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। নির্দেশনা অনুযায়ী এরই মধ্যে অনেক হাউজ এই অর্থ বিনিয়োগ করার জন্য বিও অ্যাকাউন্ট খুলেছে। কারণ একটি নির্দিষ্ট অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে এই অর্থ শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করতে হবে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে আইডিএলসি সিকিউরিটিজের এক কর্মকর্তা জুমবাংলাকে বলেন,  চীনের ওই অর্থ বিনিয়োগ করার জন্য ব্রোকারেজ হাউজ মালিকেরা সময় পাচ্ছেন ছয় মাস। এই সময়ের মধ্যে ফান্ড থেকে প্রাপ্ত অর্থ শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করতে হবে।

জুমবাংলানিউজ/পিএম