বিনোদন

অপুর ‘রাজনীতি’ নিয়ে নতুন রাজনীতি

‘“রাজনীতি” সিনেমা নিয়ে এ কোন নোংরা রাজনীতি শুরু হয়ে গেছে কিছুই বুঝছি না। কে বা কারা ইউটিউবের কয়েকটি চ্যানেলে ছবিটি প্রকাশ করে দিয়েছে! যা খুবই দুঃখজনক।’ কথাগুলো রাজনীতি সিনেমার অন্যতম নায়িকা অপুর। গতকাল শনিবার এমনটাই জানান তিনি।

ঈদে ঢাকার একটিসহ সারা দেশের চল্লিশটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় বুলবুল বিশ্বাস পরিচালিত প্রথম সিনেমা ‘রাজনীতি’। দর্শক আগ্রহে মুক্তির দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে সিনেমার প্রদর্শনী সংখ্যা বাড়তে থাকে। সেই সুবাদে সারা দেশে এখন শ খানেক প্রেক্ষাগৃহে চলছে ‘রাজনীতি’ সিনেমা। প্রেক্ষাগৃহ বাড়ার সংখ্যা যেখানে অনেক বেশি আনন্দের হতে পারত, পাইরেসি হয়ে যাওয়ায় সিনেমা-সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা ততটাই হতাশ ও ক্ষুব্ধ।

অপু বলেন, ‘একটি সিনেমা প্রেক্ষাগৃহে যাওয়া পর্যন্ত আমাদের অনেক কষ্ট করতে হয়। এরপর যখন শুনি, কে বা কারা পাইরেসি করে সিনেমাটি ইউটিউবে প্রকাশ করে দিয়েছে, তা অনেক বেশি আহত করে। যাঁরা এমন ঘৃণ্য অপরাধের সঙ্গে জড়িত, তাঁদের প্রতি ঘৃণা জানানোর ভাষা আমার জানা নেই। শুধু এটুকু বলব, আমি খুবই বিরক্ত। বহুদিন পর আমি দর্শকের সামনে নতুন একটি সিনেমা নিয়ে ফিরলাম, সেই সিনেমার সঙ্গে এমনটা মানতে কষ্ট হচ্ছে।’

এদিকে পাইরেসির খবরে ভীষণভাবে হতাশ ও ক্ষুব্ধ নির্মাতা বুলবুলও। আজ রোববার দুপুরে তিনি বলেন, ‘এটা অনেক বড় একটা অপরাধ। এই সিনেমা নিয়ে শুরু থেকে আমাকে নানা চাপ সহ্য করতে হয়েছে। মুক্তির আগে আমরা কিন্তু সিনেমার পাইরেসি রোধের ফিও জমা দিয়েছি। কঠোর আইন থাকার পরও কীভাবে পাইরেসি হয়, তা আমি বুঝতে পারছি না। তাহলে আইন থাকার দরকারই বা কী। সিনেমার প্রযোজকের পক্ষ থেকে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার ব্যাপারে ভাবা হচ্ছে। পাইরেটেড কপি ইউটিউব থেকে সরানোর জন্যও চেষ্টা চলছে।’

অপু ছাড়া ‘রাজনীতি’ সিনেমার অন্য অভিনয়শিল্পীরা হলেন শাকিব খান, আনিসুর রহমান মিলন।