খেলা-ধুলা

অধিনায়ক সাকিবকে নিয়ে যা বললেন ক্যারিবিয়ান সুনীল নারিন

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) একই তাঁবুতে খেলেন বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান ও ক্যারিবিয়ান সুনীল নারিন। কলকাতা নাইট রাইডার্সের এ দুই তারকা এবার বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগেও (বিপিএল) খেলছেন একই দলের হয়ে। ঢাকা ডায়নামাইটসের অধিনায়ক আবার সাকিব। পুরোনো এ সতীর্থের অধীনে এবারই প্রথম খেলছেন নারিন। আর অধিনায়ক সাকিবকে দেখে মুগ্ধ এ ক্যারিবিয়ান। তার উচ্ছ্বসিত প্রশংসাই করেন তিনি।

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের একাডেমি মাঠে সোমবার অনুশীলন করতে আসে ঢাকা ডায়ানামাইটস। অনুশীলনের ফাঁকে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন নারিন। পুরোনো সতীর্থের অধীনে ঢাকা ডায়ানামাইটসে কেমন উপভোগ করছেন জানতে চাইলে নারিন বললেন, ‘আমার মনে হয় ও (সাকিব) ভালো করছে। সকল সদস্যদের শক্তির জায়গায় ফোকাস করে দলকে গড়ে তুলছে। ও একজন রিলাক্সড অধিনায়ক।’ কতোটুকু উপভোগ করছেন জানতে চাইলে বলেন, ‘হ্যাঁ, আমি উপভোগ করছি।’

সিলেটে আসরের অভিষেক ম্যাচে সিলেট সিক্সার্সের কাছে উড়েই গিয়েছিল ঢাকা। তবে পরের ম্যাচেই চ্যাম্পিয়নদের মতো ফিরে আসে তারা। খুলনা টাইটান্সকে উল্টো উড়িয়ে দেয় দলটি। এরপর ঢাকায়ও দাপুটে জয়ের ধারা ধরে রাখে দলটি। দুর্দান্ত বোলিং ইউনিটের জন্যই এটা সম্ভব হচ্ছে বলে মনে করেন নারিন, ‘আমার মনে হয় আমাদের দলে যে কোয়ালিটি বোলিং অ্যাটাক আছে তাতে কাজটি সহজ হয়েছে। তাছাড়া পারফরম্যান্সের বিষয়টি একজনের ওপর নির্ভর করে না। এটি টিম এফোর্ট। কোনো ম্যাচে একজন পারফর্ম না করলেও দেখা যায় কেউ না কেউ করছেই, যা কী না দলের জন্য ভালো।’

বোলিংয়ের পাশাপাশি ব্যাট হাতেও দারুণ নারিন। গত আইপিএলে ওপেনিং করতে নেমে ব্যাট হাতে দারুণ ঝলক দেখিয়েছিলেন তিনি। তবে ঢাকার তাঁবুতে অনেক ওপেনার থাকায় সে সুযোগ হয়নি তার। তবে সুযোগ পেলে তেমন কিছুই করতে চাইবেন বলে জানান এ ক্যারিবিয়ান, ‘ঢাকায় এখনও সেই সুযোগ হয়নি। দল আমাকে যা করতে বলবে তাই করবো। তবে আমাদের ওপেনিং অর্ডার খুবই ভালো। তারপরেও যদি প্রয়োজন হয় আমি করবো। আমাদের দলটি পারফেক্ট আছে। আমার মনে হয় না দলে তেমন পরিবর্তনের কিছু আছে।’

আগের দিন টি-টুয়েন্টি ইতিহাসের তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে ৩০০ উইকেট শিকারের মাইলফলক স্পর্শ করেন নারিন। ভবিষ্যতে আরও নতুন কীর্তি গড়তে চান এ ক্যারিবিয়ান, ‘ক্রিকেটে আপনি সবসময়ই ভালো করতে চাইবেন। তাছাড়া ভালো কিছু করাও কিন্তু অর্জন। এর মানে হচ্ছে আপনি ক্রিকেট নিয়ে কাজ করছেন এবং সেখানেই ফোকাস করছেন। তবে আমার মনে হয় ভবিষ্যতে অর্জনের আরও কিছু আছে। সেদিকেই আমি ধীরে ধীরে এগিয়ে যাবো।’