বিনোদন

অডিশনে পোশাক খুলে তাদের নগ্ন হতে বলেছিলেন পরিচালক!

হলিউডে #Be too এর মাধ্যমে নিজেদের যৌন হয়রানির কথা জানিয়েছেন অনেক অভিনেত্রীরা। এর পর পরই উঠে আসে হলিউড সেলেব হার্ভে উইনস্টেইনের সেক্স স্ক্যান্ডাল। নির্যাতিতারা সোশ্যাল সাইটে তাদের অভিজ্ঞতার কথা প্রকাশ্যে এনে চলেছে৷ আর সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই বিপ্লব যেন ক্রমশ ছড়িয়ে পড়ছে৷ তারকারাও নির্ভয়ে তাদের সঙ্গে হওয়া ঘৃণ্য ঘটনা বলতে পিছপা হচ্ছেন না৷

অভিনেত্রী ডেবি আরনল্ড এবং সিন্ডি মার্শাল ডে, উভয়েই দাবি করেন যে প্রয়াত পরিচালক মাইকেল উইনার, ১৯৮০-এর দশকে এক অডিশনে তাদের পোশাক খুলে ফেলতে বলেছিলেন৷

অন্য আরও একজন অভিনেত্রী অভিযোগ করে জানান, ‘তাঁর যখন ১৬ বছর বয়স ছিল তখনই তাঁকে নগ্ন হওয়ার কথা বলেছিলেন ওই পরিচালক, কিন্তু নিজের নাম প্রকাশ্যে আনতে চাননি তিনি এই অভিনেত্রী৷ তবে এই ঘটনার জন্য পুলিশের কাছে কেউই অভিযোগ দায়ের করেননি কারণ নিজেদের কেরিয়ার ক্ষতিগ্রস্ত হোক তা নাকি তাঁরা চাননি৷ ২০১৩ সালে এই পরিচালক মারা যান৷’

এদিকে ষাটোর্দ্ধ ডেবি জানান, ১৯৮০ সালের শুরুর দিকের ঘটনা, ডেবির মা অভিযুক্ত পরিচালকের থিয়েটারের এজেন্ট ছিলেন৷ ডেবি আরও জানান, উইনার একবার ডেবিকে তাঁর বাড়িতে ডেকে পাঠান, তারপর জানালার কাছে দাঁড়াতে বলেন, যাতে সূর্যের আলোতে ডেবিকে ভালো করে দেখতে পারেন৷ শুধু তাই নয়, সে সময় ডেবিকে নাকি ছোঁওয়ারও চেষ্টা করেছিলেন এই পরিচালক, তাই দৌড়ে পালিয়ে যায় ডেবি৷

আবার সিন্ডি মার্শাল ডে জানান, ১৯৮৫ সালে একটি অডিশনে উইনার তাকে যৌনহেনস্থার চেষ্টা করেন৷ এই ঘটনাতে খুবই ক্ষুব্ধ হয়ে গিয়েছিলেন অভিনেত্রী৷