খেলা-ধুলা

যে কারনে বিপিএল থেকে বাদ পড়ল বরিশাল বুলস

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-২০ টুর্নামেন্টের অংশ নিতে পারছেনা বরিশাল বুলস। বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান আফজালুর রহমান সিনহা বুধবার জানিয়েছেন নির্ধারিত সময়ে ব্যাংক গ্যারান্টি ও ফ্র্যাঞ্চাইজ ফি জমা দিতে না পারায় বিপিএল থেকে বাদ পড়ছে দলটি।

গত ৭ আগস্ট ছিল বিপিএলের দলগুলোর ব্যাংক গ্যারান্টি ও ফ্র্যাঞ্চাইজ ফি জমা দেয়ার শেষ তারিখ। এই সময়ের মধ্যে টাকা জমা দিতে পারেনি বরিশাল। এ বিষয়ে আফজালুর রহমান সিনহা বলেন, ‘বরিশাল বুলস ফ্র্যাঞ্চাইজ ফি এবং নতুন আসর মানে এই বছর যে খেলা হবে ওই টাকাগুলো তারা এখনও দিতে পারে নাই। আমরা তাদের সময় দিয়েছিলাম, আমরা দু’বার সময় দিলেও নির্ধারিত সময়ে তারা টাকা জমা দিতে পারেনি। আমরা আর অপেক্ষা করতে পারবো না। কারণ আমাদের এখন সূচি তৈরি করতে হবে।’

সাত দল নিয়েই পঞ্চম আসর মাঠে গড়াবে বলে জানান বিপিএল চেয়ারম্যান। তিনি বলেন, ‘আমরা এবার সাতটা দল নিয়ে খেলবো।’ কয়েকবার সময় দেয়ার পরও টাকা জমা দিতে ব্যর্থ বরিশাল। তাদের বাদ দেয়ার সিদ্ধান্তও আজই নেয়া হয়। আফজালুর রহমান সিনহা বলেন, ‘এটা বলা হয়েছিল আগেই। সাত আগস্ট পর্যন্ত সময় দেয়া হয়েছিল। আজকে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

বরিশালের ফ্র্যাঞ্চাইজি আর কেউ পাওয়ার সম্ভাবনাও এখন নেই। আফজালুর রহমান সিনহা বলেন, ‘এখন আমাদের সময় নাই। আবার নতুন নিলাম ডেকে নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজিকে আনা সম্ভব না।’ বরিশাল না থাকলে বিপিএলের সময়সূচি পরিবর্তন হবে কিনা জানতে চাইলে বিসিবির এ পরিচালক বলেন, ‘এটা আবার দেখতে হবে। যেহেতু বরিশাল বুলসকে বাদ দিলাম আমরা এখন আবার নতুন করে টেকনিক্যাল কমিটি বসবে।’

আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর বিপিএলের প্লেয়ার ড্রাফট অনুষ্ঠিত হবে। চলতি বছরের ২ নভেম্বর বিপিএল টুর্নামেন্ট শুরু হতে পারে।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগে এক টিভি চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাত্কারে মুশফিকের অধিনায়কত্ব, শৃঙ্খলা, দায়িত্ববোধ নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করেছিলেন বরিশাল বুলসের অন্যতম স্বত্বাধিকারী এমএ আউয়াল চৌধুরী বুলু। বিসিবির এই পরিচালকের মন্তব্যে বিসিবির অশোভন মন্তব্যে অপমানে, ক্ষোভে, দুঃখে অশ্রুসজল প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছিলেন মুশফিক।