খেলা-ধুলা

প্রস্তুতি ম্যাচে আলো ছড়ালেন শফিউল

অস্ট্রেলিয়া সিরিজকে সামনে রেখে চট্টগ্রামে নিজেদের মধ্যে দু’দলে ভাগ হয়ে তিনদিনের একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তিনদিনের প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথম দিনের খেলা শেষে শফিউলের মুখে দেখা মিলেছে স্বস্তির ছাপ।

মিলবেই না বা কেন?  প্রথমদিনে যে তাঁর কাছেই ধরাশায়ী হয়েছে প্রতিপক্ষের বোলাররা। অধিনায়ক তামিম ইকবালের ফিল্ডিং নেওয়ার সিদ্ধান্তের পর নিজের সর্বোচ্চটা দিয়ে বল করেছেন দীর্ঘদিন পর আবারো টেস্ট দলে ঢুকার প্রতীক্ষায় থাকা শফিউল। নিজের প্রথম স্পেলেই তাক লাগিয়ে দিয়েছেন বাউন্সার, গতি আর সুইংয়ে।

সাফল্যও ধরা দিয়েছে তাঁর কাছে। ভালো বোলিংয়ের বিপরীতে প্রথম স্পেলেই ইমরুল কায়েস (৫), সৌম্য সরকার (১) ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (০) ফিরিয়েছেন তিনি। দলের এমন বিপর্যয়ে নাজমুল হাসান শান্তকে সাথে নিয়ে হাল ধরেছিলেন মুশফিকুর রহিম। বেশ কিছুক্ষণ দাঁতে দাঁত চাপিয়ে লড়াই করলেও সঞ্জিত সাহার কাছে ৩০ রান করে আউট হয়ে গেলে দলকে সর্বোচ্চ পর্যায়ে নিয়ে যেতে ব্যর্থ হন।

অধিনায়কের বিদায়ের পর নাজমুল হাসান শান্ত খেলেছেন সর্বোচ্চ ৫৩ রানের ইনিংস। তবে অর্ধশতক পূরণের পর তাঁরও বিদায় ঘটলে ফের বিপাকে পড়ে মুশফিক একাদশ। এরপর নুরুল হাসান সোহান (১৬), তাইজুল ইসলামরা  অনেক ক্ষণ ক্রিজে লড়াই চালালেও আগ্রাসী রুপ ধারণের আগেই শফিউলের শিকার হয়ে মাঠ ছাড়েন। প্রস্তুতি ম্যাচ প্রস্তুতির জন্য এমন মন-মানসিকতা থেকে ৯ উইকেটে ১৪০ রান তোলার পর ইনিংস ঘোষণা করেন মুশফিকুর রহিম।

বোলারদের ঝালিয়ে নেওয়ার মিশনে ফিল্ডিংয়ে নেমে সাফল্য পেতে বেশিক্ষণ দেরী করতে হয়নি মুশফিকদের। লিটন দাস রুবেলের বলে স্লিপে ক্যাচ দিয়ে একবার বাঁচলেও ফের আবার তাঁর ওভারেই স্লিপে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান সাজঘরে। এরপর দিনের বাকিটা খেলা মুমিনুল হক ও মুশফিকুর রহিম ক্রিজে থেকে কাটিয়ে দেন। তামিম ২৯ রানে ও মুমিনুল ১৯ রানে অপরাজিত থেকে প্রথম দিনের খেলা শেষ করেন।

স্কোরকার্ড-

মুশফিকের দলঃ ১৪০/৯  ডিক্লে….
সৌম্য ১, ইমরুল ৫, শান্ত ৫৩, মাহমুদউল্লাহ ০, মুশফিক ৩০, সোহান ১৬, তাইজুল ২৬, সাকলাইন ১, রুবেল ১;
শফিউল ১৭-৫, তাসকিন ৩২-১ , মুস্তাফিজ ১৫-১, সঞ্জিত ৬-০-১৯-১, সানজামুল ৩২-১,
 
তামিমের দলঃ ৪৯/১
তামিম ২৩*, লিটন ৫, মুমিনুল ১৯*