বিনোদন

শিল্পী সমিতিতে মৌসুমীকে চান জায়েদ খান!

আমরা চাই সবাইকে নিয়ে একসঙ্গে কাজ করতে। চলচ্চিত্র শিল্প খারাপ সময় পার করছে। শিল্পী সমিতিতে নির্বাচিত হবার পর মিশা ভাই (মিশা সওদাগর) ও আমি চেষ্টা করে যাচ্ছি সবাইকে নিয়ে কাজ করার। নায়ক ফারুক ও আলমগীর হোসেনসহ সিনিয়র শিল্পী সবাই যেভাবে আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন তা সত্যি আমাদের জন্য অনুপ্রেরণার।বলছিলেন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সেক্রেটারি জায়েদ খান।

শনিবার সন্ধ্যায় চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস। এফডিসিতে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির কার্যালয়ে তাকে শপথবাক্য পাঠ করান সভাপতি মিশা সওদাগর।

ফেরদৌসের শপথ নেয়া শেষে এক আলাপচারিতায় জায়েদ আরো বলেন, আজ (শনিবার) ফেরদৌস ভাই আমাদের সঙ্গে শপথ নিলেন। ক’দিন আগে মৌসুমী আপা পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। তবে মিশা ভাই ও আমি এ পদত্যাগপত্র এখনো গ্রহণ করিনি। তার সিদ্ধান্ত তো বদলাতেও পারে। আমাদের চাওয়া তার মতো একজন গুণী শিল্পীকে নিয়েও কাজ করা।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০১৭-১৯ মেয়াদের নির্বাচনে কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্যপদে জয়ী হয়েছিলেন চিত্রনায়িকা মৌসুমী। কিন্তু নির্বাচনের পর তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে শপথ গ্রহণ করেননি। ক’দিন আগে কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্যপদ থেকে অব্যাহতি চেয়ে এ অভিনেত্রী শিল্পী সমিতির সভাপতি বরাবর আবেদন করেছেন।

অব্যাহতিপত্রে মৌসুমী লিখেছিলেন, ব্যক্তিগত কারণে তিনি তার পদ থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন।

গেলো ৫ মে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির দুই বছর মেয়াদি কমিটির নির্বাচনে মৌসুমী কার্যনির্বাহী সদস্যপদে জয়ী হন। তিনি ছিলেন ওমর সানী-অমিত হাসান প্যানেলের প্রার্থী। নির্বাচনে ওমর সানী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন সমিতির সভাপতি পদের জন্য। কিন্তু সেই পদে জয়ী হন মিশা সওদাগর।