খেলা-ধুলা

সাব্বিরের টাগের্ট ৩৭ বলে সেঞ্চুরি

1সাব্বির রহমানের ব্যাটে বলের আঘাত হলেই নাকি না দেখে বলে দেয়া যায় কে ব্যাটিং করছে। ‘সুইট টাইমার অব দ্যা ক্রিকেট বল’, এই ক্রিকেটিয় টার্মটি বাংলাদেশ ক্রিকেটে সাব্বির রহমানের ক্ষেত্রেই ব্যবহার করা হয়।

এর আগে মোহাম্মাদ রফিক, মোহাম্মাদ আশরাফুল ও আফতাব আহমেদরা বাংলাদেশ ক্রিকেটের ইতিহাসে আগ্রাসী ব্যাটিংয়ের শুরু করলেও তামিম ইকবালরা সেটাকে অন্য মাত্রা দিয়েছে।

কিন্তু সাব্বির রহমান, সৌম্য সরকাররা বলকে দূরে পাঠানো প্রতিযোগিতায় সবাইকে ছাড়িয়ে যাচ্ছে। বিশেষ করে সাব্বির রহমানকে টাইগার ব্যাটিং লাইন আপের ‘নেক্সট বিগ থিং’ মানা হয়।

বছরের শুরুতে টি-টুয়েন্টির এশিয়া কাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৫৪ বলে ৮০ রানের ম্যাচ জয়ী ইনিংস তারই প্রমান রাখেন তিনি।

সাদা বলের ক্রিকেট নিজের স্ট্যাম্প পুতে প্রথম টেস্ট সিরিজেই ইংলিশদের চোখে আঙ্গুল দিয়ে লড়াই করেছেন সাব্বির রহমান।

কিন্তু সাব্বিরের শুরুটা হয়েছিল ১৯৯৬ সালে আরেক পাকিস্তানি তরুনের ব্যাটিং দেখে। নাইরোবিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শহিদ আফ্রিদির ৩৭ বলের সেঞ্চুরি দেখেই বিগ হিটিংয়ের সূচনা করেছেন টাইগার তরুন সাব্বির।

ক্রিকইনফোকে দেয়া সাক্ষাৎকারে সম্প্রতি সাব্বির জানান, ‘শহীদ আফ্রিদির ৩৭ বলে সেঞ্চুরি দেখে আমি তার মত আগ্রাসী ব্যাটিং শুরু করি। কিন্তু আমি তার মত দূরে বল মারতে পারতাম না।

আমার বন্ধুরাও আমাকে টেনিস বল ক্রিকেটে ব্যাটিং করার সুযোগ দিত না। তখন থেকেই বল দূরে পাঠানোর পাগলামি শুরু হয়।

আমি মুজায় বল ঝুলিয়ে বিগ হিটিং প্র্যাকটিস করা শুরু করি। একদিন আমি স্কুলে ছয় বলে ছয় ছক্কা মেরেছিলাম। সেখান থেকেই আমার আত্মবিশ্বাস বেড়ে যায়।’

ভিডিওঃ মেয়েটি স্টেজে নাচতে শুরু করলো, তারপর যা হলো

Add Comment

Click here to post a comment