আন্তর্জাতিক

৭ খুনের দায় স্বীকার কোলহেপের

1aসাতজনকে হত্যার দায় স্বীকার করেছেন টোড কোলহেপ। যুক্তরাষ্ট্রের সাউদ ক্যারোলাইনায় একটি মালবাহী কনটেইনারে ‘কুকুরের মতো শেকল দিয়ে বেঁধে রাখা’ এক তরুণীকে উদ্ধারের পর তাকে গ্রেফতার করা হয়। ওই এলাকার শেরিফের বরাত দিয়ে বিবিসির অনলাইন ভার্সনে এ খবর জানানো হয়।

শনিবার কোলহেপ পুলিশকে জানায়, ২০০৩ সালে চারজনকে হত্যা করেছিলেন তিনি। এছাড়া তিনি আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কর্মকর্তাদের অন্য দুই ভুক্তভোগীকে যেখানে সমাহিত করেছেন সে জায়গার সন্ধান দিয়েছেন।

যৌন অপরাধের তালিকাভুক্ত ৪৫ বছর বয়সী কোলহেপকে বৃহস্পতিবার আটক করে পুলিশ। তারই একটি মালবাহী কনটেইনারে শেকল পরা কালা ব্রাউন নামে এক তরুণীকে উদ্ধারের পর তাকে আটক করা হয়। গত আগস্টে ওই নারী তার ছেলে বন্ধুর সাথে নিখোঁজ হন।

সাউথ ক্যারোলাইনার প্রাদেশিক রাজধানী কলাম্বিয়া থেকে ১৩০ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল উডরাফে একটি মেটাল শিপিং কন্টেইনারের ভেতরে চিৎকার ও গোলমালের শব্দ শুনে পুলিশ ওই তরুণীর সন্ধান পান।

শুক্রবার ৯৫ একর একটি জমিতে অন্য একটি মরদেহ উদ্ধার করা হয়। লাশটি তরুণীর প্রেমিকের বলে সনাক্ত করা হয়। তার নাম চার্লস কারভার (৩২)। উদ্ধার হওয়া ওই তরুণী পুলিশকে জানান, তার সামনেই তাকে গুলি করে হত্যা করেন টড কোলহেপ।

ভিডিওঃ এই চাইনিজ সুন্দরীদের রূপ আপনার চোখ ঝলসে দেবে! [দেখুন ভিডিওতে] 

Advertisements

Add Comment

Click here to post a comment