খেলা-ধুলা

৬ রানে ২টি উইকেট হারিয়ে ভারত মহাবিপদে

টস জিতে পাকিস্তানকে আগে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়ে বিরাট কোহলি কি ভুল করেছিলেন? ম্যাচের বয়স দশ ওভারে যাওয়ার আগেই এই প্রশ্ন ওভালে উড়তে শুরু করে। সেই তালে তালে ফখর জামান (১১৪) এবং আজহার আলী (৫৯) ম্যাচের লাগাম আরও শক্ত করে ধরে ফেলেন। শুরুর এই শক্ত ভিতটাকে পাকিস্তান ৫০ ওভার শেষে ৩৩৮’এ নিয়ে গেছে।

ওভালে রান তাড়ার সর্বোচ্চ রেকর্ড ৩২১ পর্যন্ত। হারার দলে নাম এই ভারতের। এই চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে ৮ জুন তাদের করা অত রান টপকে গিয়েছিল শ্রীলঙ্কা।

এদিন পড়ে পাওয়া জীবনে শতরানের ফুল ফোটান ফখর জামান। ব্যক্তিগত

৩ রানে থাকার সময় জসপ্রীত বুমরাহর পায়ের কারণে ‘নো’ হওয়ায় বেঁচে যান তিনি। এরপর ৯২ বলে তুলে নেন শতক।

ফখর সেই ভুল ছাড়া আর কোনও সুযোগ দেননি। ব্যাটিং দেখে বোঝার উপায় ছিল না এই চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতেই ওয়ানডে অভিষেক তার। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৩১ রান দিয়ে শুরু ক্যারিয়ার। পরের দুই ম্যাচে ফিফটির পর এবার পেলেন তিন অঙ্কের দেখা।

জীবন পেয়ে আরও ভয়ঙ্কর হয়ে উঠেন ফখর জামান। ইনিংস সাজানো ১২টি চার ও দুই ছয়ে।

এদিন পাঁচ বোলারকে ব্যবহার করেও শতরানের আগে উইকেট বের করতে পারেননি বিরাট কোহলি। দলীয় ১২৮ রানে আজহার আলী ৫৯ করে রান আউট হলে ভাঙে ওপেনিং জুটি। আইসিসির কোনও আসরে এটিই পাকিস্তানের সর্বোচ্চ রানের ওপেনিং জুটি। ১৯৯৬ সালে ব্যাঙ্গালুরুতে আমির সোহেল ও সাইদ আনোয়োরের করা ৮৪ রান ছিল আগের সর্বোচ্চ।

মিডলঅর্ডারে মোহাম্মদ হাফিজও দারুণ খেলেছেন। ৩৭ বলে ৫৭ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি। বাবর আজম করে যান ৪৭।

জবাবে ব্যাট করতে মেনেই মাত্র ৬ রানে ২টি উইকেট হারিয়ে মহাবিপদে পড়েছে ভারতীয় ক্রিকেট দল। আউট হয়ে সাজঘরে ফিরেছেন রোহিত শর্মা এবং বিরাট কোহলি। উইকেট দুটি পেয়েছেন মোহাম্মদ আমির।