লাইফ স্টাইল স্বাস্থ্য

হাসপাতালে সন্তান প্রসব করার আগে যে জিনিসগুলি সাথে নিতে কখনোই ভুলবেন না

রেহেনা আক্তার রেখা: আমরা প্রায় দেখি বর্তমানে বেশিরভাগ মা সন্তান বাড়িতে প্রসবের ঝুঁকি নিতে চায়না। অধিকাংশ দেখা গেছে সন্তান জন্ম দেওয়ার কিছুদিন আগে তারা হাসপাতালে গিয়ে উপস্থিত থাকেন। কিন্তু আপনার যদি হাসপাতালে কিছুদিন থাকার ইচ্ছে থাকে তাহলে আপনাকে কিছু বিষয় মাথায় রাখতে হবে। কারণ এই সময় প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র সঙ্গে  নিয়ে না আসলে আপনার পরিবারের লোকদের অনেক কষ্ট হয়ে যাবে। আসুন জেনে নেই  ঐ সময় কি কি জিনিস সাথে নিয়ে আসতে হয়।

১।ডাক্তারে প্রেসক্রিপশন , বিভিন্ন টেস্ট রিপোর্ট, প্রয়োজনীয় ঔষধডাক্তারের প্রেসক্রিপশন , বিভিন্ন টেস্ট রিপোর্ট, প্রয়োজনীয় ঔষধ ব্যাগের যথাস্থানে গুছিয়ে রাখতে হবে। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সময় এবং আপনার যথাযথ ডায়াগনোসিসের জন্য এসব প্রেসক্রিপশন, রিপোর্ট অবশ্যই প্রয়োজন হবে। রিপোর্ট, প্রেসক্রিপশনের জন্য একটি ফাইল মেইনটেইন করুন যা সহজেই খুঁজে পাবেন। এতে আপনি সহজে সবকিছু হাতের কাছে পাবেন।

২ শিশুর জন্য জামা কাপড় কিনে রাখবেন: নবজাতকের আগমন পরবর্তী মুহূর্ত গুলো যাতে সুরক্ষিত ও নিরাপদ হয় সে কথা মাথায় রেখে কিছু হাল্কা সুতি কাপড়ের কাঁথা, ন্যাপকিন, আরামদায়ক ডায়াপার, নরম বেবি তোয়ালে ইত্যাদি প্রয়োজনীয় জিনিস হাতের কাছেই রাখুন ।

৩।বিছানার চাদর, বালিশ, কাঁথা  সাথে নিয়ে আসতে হবে: হাসপাতালে যাওয়ার সময় নিজের প্রয়োজনীয় দু’খানা বিছানার চাদর,পাতলা কাঁথা ,যদি সময়টা হয়ে থাকে শীতকাল তবে পাতলা কম্বল আর সুযোগ থাকলে নিজের অতি প্রিয় নিত্যসঙ্গী বালিশ খানাও নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা যেতে পারে। আর যাই হোক, মাতৃত্বের মত গুরুত্বপূর্ণ সময়ে নিজের মনকে কিছুটা মুহূর্তের জন্য হলেও রিলাক্স রাখার চেষ্টা বইকি।

৪। নরম তোয়ালে নিয়ে যেতে হবে: এসময় নরম তোয়ালে নিয়ে যেতে হবে। তাছাড়া, প্রসবের পর আপনার সন্তানকে পরিষ্কার করার জন্য তোয়ালে দরকার।

৫। স্লিপার মোজা নিতে ভুলবেন না: নরমাল হাঁটাচলার জন্য এবং ওয়াশ রুম এ ব্যবহারের জন্য আলাদাভাবে দু’ জোড়া স্যান্ডেল অবশ্যই সাথে রাখতে হবে। তবে খেয়াল রাখবেন স্যান্ডেল গুলো যাতে স্লিপারি না হয়। হাঁটাচলায় সাবধান থাকুন। আর সময়টা যদি হয় শীতকাল তবে সাথে মোজা রাখতে অবশ্যই ভুল করবেন না।

৬। মোবাইল ফোন, চার্জার, এবং রিচার্জ কার্ড সাথে রাখুন: সবার আগে মোবাইল ফোনটি নিতে ভুল করবেন না। চার্জারটি ঠিকমতো কাজ করছে কিনা তা দেখে নিন । মোবাইলের বেশী করে টাকা রিচার্জ করে নিন। দরকার হলে কয়েকটি রিচার্জ কার্ড ব্যাগে রাখুন।

৭। টয়লেট্রিজ সামগ্রী নিতে ভুলবেন না: বিভিন্ন ধরনের টয়লেট্রিজ সামগ্রী যেমন: টুথপেস্ এসব সামগ্রী সাথে নিয়ে আসুন। এছাড়া হাল্কা প্রসাধনী যেমন চিরুনি, আয়না, হেয়ার ব্যান্ড, ময়শ্চারাইজার লোশান্ নিয়ে যেতে পারেন।

৮।কাগজ কলম নিয়ে যাবেন: হাসপাতালে কোন প্রয়োজনীয় কিছু লিখতে হতেও পারে অথবা যাদের লেখালেখির অভ্যাস আছে তাঁরা তাঁদের এইরকম একটা বিশেষ মুহূর্তে মনের অনেক না বলা অনুভূতির কথা ডায়েরি বা নোটবুক এ লিখে রাখার তাগিদে কাগজ,কলম, ডায়েরি বা নোটবুক নিতে ভুলে যাবেন না যেন।

৯। কিছু শুকনো খাবার নিয়ে যেতে পারেন: প্রসবকালীন সময়টা অনেকসময় মায়ের মুখ শুকিয়ে যায়। এজন্য সবসময় সুগার ফ্রি লজেন্স মুখে রাখা ভাল। আর তাই এক প্যাকেট সুগার ফ্রি লজেন্স, ঔষধ খাওয়ার সময় হালকা কিছু খাওয়ার জন্য কিছু শুকনো খাবার ব্যাগে অবশ্যই রাখবেন।

১০।ইলেকট্রিক কেটলী ও পানিরর জগ নিয়ে যান: আপনার প্রসবের সময়টা যদি শীতকাল হয়, তাহলে এজন্য পানি গরমের জন্য ইলেকট্রিক কেটলী থাক এছাড়া পানিখাওয়ার জন্য পানির জগ নিয়ে যেতে পারেন।

উপরের বিষয়গুলি মাথায় রেখে সন্তান প্রসবের জন্য হাসপাতালে গেলে আপনাকে কোন কিছু খোঁজতে হবেনা সব প্রয়োজনীয় জিনিস এক সাথে পাবেন।