Advertisements
অপরাধ/দুর্নীতি জাতীয়

সৎবাবার ধর্ষণের শিকার হয়ে ৯ মাসের অন্তঃসত্তা মেয়ে! (ভিডিও)

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে সৎবাবার ধর্ষণের শিকার হয়ে এক কিশোরীর অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে আদালতে মামলা হওয়ার ১৫ দিন পরেও অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে না পারায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্বজন ও এলাকাবাসী। তবে, আসামিকে দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার আশ্বাস দিয়েছে পুলিশ।

১০ বছর আগে স্বামীর সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্ক ছি্ন্ন হবার পরে টাঙ্গাইলের ঘাটাইলের সাগর দিঘী এলাকার পোল্ট্রি ব্যবসায়ী কামরুলকে বিয়ে করেন ধর্ষণের শিকার ছাত্রীটির মা। সেখানে থেকেই স্থানীয় মাদ্রাসায় পড়াশুনা করে ছাত্রীটি।

গত ৯ মাস আগে মায়ের অনুপস্থিতিতে সৎ বাবার লালসার শিকার হয় ওই কিশোরী। একথা কাউকে জানালে তাকে প্রাণনাশের হুমকিও দেয়া হয়। পরে হঠাৎ অসুস্থ হবার পরে চিকিৎসকের কাছে গিয়ে অন্ত: স্বত্তা হবার বিষয়ে জানতে পারে সে।

ধর্ষণের শিকার ছাত্রীটি বলেন, ‘একদিন রাত্রে আমাকে ঘুমের মধ্যে জরায় ধরে। এরপর আমার সাথে খারাপ কাজ করলো। পরে আমি বলতে চাইলে আমাকে মেরে ফেলার হুমকি দিলো।’

ধর্ষণের বিচার চেয়ে গ্রামের মাতব্বর ও স্থানীয় থানায় বেশ কয়েকবার ব্যর্থ হয়ে গত ২৪ জুলাই নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে কামরুলের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করে অন্তঃসত্তা কিশোরী।

কিন্তু এখনো অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে না পারায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মা ও এলাকাবাসী।

এলাকাবাসীরা বলেন, ‘এলাকাবাসী হিসেবে আমি তাঁর দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি চায়। আর যেনো এই ধরণের কাজ এই এলাকাসহ কোনো জায়গায় না হয়।’

তবে শিগগিরই আসামীকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার আশ্বাস দিয়েছে টাঙ্গাইল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সৈকত শাহিন।

ধর্ষণের শিকার শিশুটি বর্তমানে ৯ মাসের অন্ত: স্বত্তা হয়ে নানা বাড়িতে আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে।

ভিডিও ক্লিপটি দেখতে ক্লিক করুন

Advertisements