আন্তর্জাতিক

স্বামী ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষে ভোটারদের সমর্থন চাইলেন স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্প

rআসন্ন মার্কিন নির্বাচন ঘিরে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রচারণা। আর এই প্রচারণায় অংশ নিয়ে স্বামী ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষে ভোটারদের সমর্থন চাইলেন স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্প।

বৃহস্পতিবার পেনসিলভানিয়ায় প্রথম কোনো নির্বাচনী সমাবেশে বক্তব্য দেন মেলানিয়া।

বক্তব্যে সাবেক এই মডেল ‘ন্যায্য আমেরিকা’ গড়ার জন্য ট্রাম্পকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানান।

মূলত নারী ভোটারদের মন জয়ের জন্য প্রচারণায় অংশ নিয়ে মেলানিয়া বলেন, আমি ১০ বছর বয়সী এক বালকের মা এবং আমার ছেলের বাবা দেশের সত্যিকার পরিবর্তন চান।

বক্তব্যে নিজেকে পুরো সময়ের জন্য একজন মা হিসেবে উল্লেখ করেন মেলানিয়া।

নারী ভোটারদের আশ্বস্ত করে মেলানিয়া বলেন, ‘তিনি (ট্রাম্প) একজন দারুণ মার্কিন প্রেসিডেন্ট হবেন।’

গোলাপী পোশাকে আবৃত মেলানিয়া ট্রাম্প নিজেকে একজন অভিবাসী ও দেশপ্রেমিক আমেরিকান দাবি করে বলেন, আমি একজন অভিবাসী এবং আমি বলতে পারি আমেরিকার দেয়া স্বাধীনতা ও সুযোগের প্রতি শ্রদ্ধা আমার চেয়ে কারও বেশি নেই।

ট্রাম্পকে একজন আদর্শ প্রার্থী হিসেবে তুলে ধরে তিনি বলেন, যখন কোনো কারখানা বন্ধ হয়ে যায় তখন সে (ট্রাম্প) বিচলিত হয়ে পড়ে। প্রতি সকালে লোকজনকে কাজের জন্য এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় দৌড়াতে দেখলে সে হতাশ হয়।

মেলানিয়া সুরক্ষিত সীমান্ত এবং নিরাপদ দেশ ও ন্যায়বিচার নিশ্চিতে ট্রাম্পকে সহায়তা করার জন্য ভোটারদের প্রতি আহ্বান জানান।

এ সময় অনলাইনের অপপ্রচার এবং ‘খুব নীচ ও খুব রুক্ষ’ সংস্কৃতির বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার অঙ্গীকার করেন মেলানিয়া।

বিবিসির খবরে বলা হয়, মেলানিয়া বলেছেন, তার স্বামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হারানো ভাবমূর্তি ফিরিয়ে আনবেন। দেশকে সবার জন্য অবাধ ও নিরাপদ করবেন।

শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় ডেমোক্রেটিক দলের প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের পক্ষে প্রচারে অংশ নিয়েছেন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের মাত্র তিন দিন বাকি থাকতে করা জরিপে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের তুলনায় পিছিয়ে পড়েছেন রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প।

বৃহস্পতিবার নিউইয়র্ক টাইমস ও সিবিএস নিউজের প্রকাশিত সর্বশেষ জরিপের ফলাফলে দেখা গেছে, ট্রাম্পের চেয়ে মাত্র ৩ পয়েন্টে এগিয়ে রয়েছেন হিলারি।

Add Comment

Click here to post a comment