অন্যরকম খবর

স্ত্রীকে তালাক দিয়ে শাশুড়িকে নিয়ে হানিমুনে

বিয়ের এক বছর পর স্ত্রীকে ছেড়ে শাশুড়িকে নিয়ে হানিমুনে গেছেন এক যুবক। ঘটনাটি ভারতের বিহার রাজ্যের। জানা গেছে, গত বছরের মাঝামাঝি ২৩ বছর বয়সী সুরজ নামের ওই যুবক যখন শাশুড়ির প্রতি তার অনুরাগের কথা জানান, তখন সবে তার বিয়ে হয়েছে। স্ত্রী লতা ১৯ বছরের তরুণী।

কিন্তু সুরজ জানান, তার অসুস্থ অবস্থায় স্ত্রী তার সেবা করেননি, করেছেন শাশুড়ি। আর ওই সময় ৪২ বছরের শাশুড়ি আশার সঙ্গে তার সম্পর্ক তৈরি হয়েছে।

শাশুড়ির নীরব সম্মতিও তখন বুঝিয়ে দিয়েছিল অনেক কিছু। তবে বাদ সাধেন ৪৮ বছর বয়সী শ্বশুর হরি। তিনি নিজের স্ত্রী আর জামাইয়ের বিরুদ্ধে পঞ্চায়েতে অভিযোগ করেন। কিন্তু পঞ্চায়েত এ সমস্যার সমাধান খুঁজে পায়নি। ফলে অভিযোগ যায় আদালতে। এরপর ওই যুবকের স্ত্রীও স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন।

কিন্তু প্রেমের টানে তত দিনে সুরজ আর তার শাশুড়ি আশা পাগলপ্রায়। তারা একে অপরের সঙ্গে থাকতে আদালতেই সুরজ স্ত্রী লতার সঙ্গে বিচ্ছেদ করেন। এরপর গত বুধবার বিয়ে করেন আশাকে।

বিয়ের পরই এই প্রেমিক যুগল হানিমুনে গেছেন বলে জানিয়েছেন আত্মীয়-পরিজনরা।

তাদের অনেকেই মন থেকে এ বিয়ে মেনে না নিলেও বলছেন, কিছুই তো আর করার নেই। আদালতের আদেশ, তাই সব মেনে নিতে হবে।

Advertisements





সর্বশেষ খবর