অপরাধ/দুর্নীতি

স্ত্রীকে খুনের পরিকল্পনায় দু’মাস অনুশীলন স্বামীর

স্ত্রীকে খুন করতে দু’মাস ধরে শ্যুটিংয়ের অনুশীলন করেছিল স্বামী। কল্যাণীর আইনের ছাত্রী মৌমিতা বিশ্বাস খুনের ঘটনায় ধৃত স্বামী নিখিলকে জেরা করে এমনই তথ্য পেয়েছে পুলিশ।

স্ত্রীকে খুন করতে দু’মাস ধরে শ্যুটিংয়ের অনুশীলন করেছিল স্বামী। কল্যাণীর আইনের ছাত্রী মৌমিতা বিশ্বাস খুনের ঘটনায় ধৃত স্বামী নিখিলকে জেরা করে এমনই তথ্য পেয়েছে পুলিশ।
মৌমিতা খুনের ঘটনায় ব্যবহৃত আগ্নেয়াস্ত্র খোঁজে পুলিশ সোমবার নিখিলকে নিয়ে বেরিয়েছিল। কল্যাণী এক্সপ্রেসওয়ের পাশে জোনপুরের এক ঝিল থেকে একটি সেভেন এম এম পিস্তল উদ্ধার হয়। মৌমিতাকে খুনের জন্য কয়েকমাস ধরে পরিকল্পনা করেছিল টিটাগড়ের গণেশপুরের বাসিন্দা নিখিল। জেলে থাকা তার এক বন্ধুর কাছ থেকে ওই পিস্তলটি সে জোগাড় করে। তারপর অব্যর্থ নিশানার জন্য গত দু’মাস ধরে কয়েকটি ফাঁকা মাঠে শ্যুটিংয়ের মহড়া দিয়েছিল পেশায় ব্যবসায়ী নিখিল। এমনকী, গত বৃহস্পতিবার মৌমিতাকে খুনের কয়েকদিন আগেও আলাদা করে মহড়া দিয়েছিল সে।
ব্যারাকপুর এলাকায় নিখিলের এক আত্মীয়ের বাড়ি থেকে তার মোটরবাইক উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে মৌমিতার দু’টি মোবাইল অবশ্য উদ্ধার হয়নি। দু’টি মোবাইলের যন্ত্রাংশ খুলে বিভিন্ন জায়গায় ফেলে দেয় নিখিল। পরে সে মোটরবাইক নিয়ে চম্পট দেয়। এমনকী, খুন করার পর টিটাগড়ে তার নিজের দোকানও খোলে।
পুলিশ সূত্রের খবর, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নিখিল বলে, কলেজ থেকে মৌমিতাকে বাড়ি পৌঁছে দেবে সে। সেইমতো নিখিলের মোটরবাইকে ওঠে মৌমিতা। দু’জনে একটি রেস্তরাঁয় খাওয়াদাওয়া করেন। এর পরেই দু’জনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয় এক্সপ্রেসওয়ের নির্জন এলাকায় নিয়ে গিয়ে খুব কাছ থেকে মৌমিতাকে গুলি করে নিখিল।

আরও পড়ুনঃ এই আমেরিকান সুন্দরীরা আপনার রাতের ঘুম কেড়ে নেবে… (ভিডিও সহ)

Advertisements

Add Comment

Click here to post a comment