বিনোদন

সালমান শাহ’র খুনিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি বাপ্পী‘র

প্রয়াত নায়ক সালমান শাহর মৃত্যুর কারণ আত্মহত্যা নয়, ওটা ছিল হত্যা- ঠিক এমনই একটি ভিডিও বার্তা দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী একজন বাংলাদেশি নারী। শুধু তাই-ই নয়, হত্যাকারীর নাম ও ইন্ধনদাতার নামও তিনি প্রকাশ করেছেন উক্ত ভিডিও বার্তায়। সামাজিক গণমাধ্যমে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী উক্ত নারীর সম্পূর্ণ নাম রাবেয়া সুলতানা ওরফে রুবি। তার বাবার নাম আব্দুর রশিদ। আব্দুর রশিদ হচ্ছেন একজন রাজনীতিবিদ ও সাবেক মন্ত্রী। তার প্রথম স্বামী ছিলেন ক্যাপ্টেন জামিল।

জিয়াউর রহমান মারা যাওয়ার পরবর্তীতে যে ১৩ জন সেনা কর্মকর্তাকে ফাঁসিতে ঝোলানো হয়েছিল, তার মধ্যে ছিলেন রাবেয়া সুলতানা রুবির স্বামী জামিলও। তার ভিডিও বার্তাটি নিয়ে বর্তমানে সরগরম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক। সাধারণ মানুষের পাশাপাশি নিজেদের প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট তারাকারাও। তেমনি একজন হচ্ছেন চিত্রনায়ক বাপ্পি চৌধুরী। ফেসবুকে দেওয়া তার স্ট্যাটাসের সার কথা হচ্ছে- উক্ত ভিডিওটিকে সূত্র হিসেবে ধরে যাতে উক্ত নারীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়, যাতে সালমান শাহর মৃত্যুর কারণ আত্নহত্যা না হয়ে হত্যা হলে- হত্যাকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির প্রত্যাসা করেছেন তিনি।


বাপ্পি চৌধুরী বর্তমানে বাংলাদেশি সিমেনার একজন জনপ্রিয় চিত্র নায়ক। চলচ্চিত্রাঙ্গনে তার অভিষেক ঘটে পাঁচ বছর আগে, মানে ২০১২ সালে ভালোবাসার রঙ নামক একটি সিনেমার মধ্য দিয়ে। এর পর থেকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি এই নারায়নগঞ্জের ছেলে বাপ্পি চৌধুরীকে। প্রথম চলচ্চিত্র মুক্তির আগেই ৯ টি সিনামায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন তিনি। অভিষেকের বছরই তিনি অভিনয় করেন মোট চারটি সিনেমায়। ভালোবাসার রঙ ছাড়াও ২০১২ সালে মুক্তি পাওয়া- রোমিও ২০১৩, অন্যরকম ভালবাসা ও জটিল প্রেম সিনেমায় অভিনয় করে দর্শক হৃদয়ে পাকাপোক্ত অবস্থান করে নেন সুদর্শন বাপ্পি চৌধুরী। ২০১৩ সালে অভিনয় করেছে- ইঞ্চি ইঞ্চি প্রেম, প্রেম প্রেম পাগলামি, কি প্রেম দেখাইলা, তবুও ভালবাসি নামক সিনেমায়। কি দারুন দেখতে, হানিমুন, লাভ স্টেশন, অনেক সাধের ময়না, আই ডোন্ট কেয়ার, দবির সাহেবের সংসার নামক চলচ্চিত্রগুলোতে অসাধারণ অভিনয় করে তিনি মাতিয়ে রেখেছিলেন গোটা ২০১৪ সালের

চলচ্চিত্রাঙ্গনকে। চলতি বছর দুলাভাই জিন্দাবাদ সিনেমা করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন দর্শকের চোখে।

Advertisements