খেলা-ধুলা

সাকিবকে ছাড়া বাংলাদেশ দল নিয়ে যা বললেন মুশফিক

টেস্ট থেকে সাময়িক বিশ্রামে যাওয়ায় দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের টেস্ট দলে নেই সাকিব আল হাসান। বিশ্বের এক নম্বর অল রাউন্ডারকে না পাওয়া অধিনায়ক হিসেবেও যে কাউকেই অস্তস্তি দিবে। সাকিবের অনুপস্থিতিতে অসুবিধার কথা লুকালেন না টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহীমও।

সাউথ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজকে সামনে রেখে আজ ঢাকা ছাড়বে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। এই সফরে টেস্ট সিরিজে খেলবেন না টাইগার অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। বিশ্রামে থাকতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছ থেকে ছুটি নিয়েছেন তিনি।

সাউথ আফ্রিকার সফরে যাওয়ার আগে শনিবার সংবাদ সম্মেলনে টেস্ট ফরম্যাটে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম বলেছেন,অনেক সময় কেউ যদি ইনজুরিতে পড়ে তাকে ছাড়াই আমাদের খেলতে হবে। হ্যাঁ, এটা ঠিক যে তার রিপ্লেসমেন্ট অন্য কাউকে দিয়ে হবে না। কিন্তু শুরুর দিকে যখন শুনেছিলাম যে সাকিব হয়তো থাকবে না তখন ভেবেছিলাম ও যদি নাও যায় তাও আমাদের খেলতে হবে। ক্রিকেট একটা টিম গেম। আমরা চেষ্টা করব টিম হিসাবে ভালো পারফরম্যান্স করার। সাকিবের অপূর্ণতা যেন আমরা সবাই মিলে পূরণ করতে পারি।

তিনি আরও বলেন, আত্মবিশ্বাসটা গুরুত্বপূর্ণ। আপনি যদি বিশ্বাসই করতে না পারেন যে সাউথ আফ্রিকাকে হারাতে পারেন তাহলে কিন্তু ভালো করতে পারবেন না। আমাদের বিশ্বাস ছিল ইংল্যান্ডকে হারাতে পারি। শ্রীলঙ্কার মাটিতে তাদের হারাতে পারি। অস্ট্রেলিয়াকে হারাতে পারি। আমরা সেটা পেরেছি।

মুশফিক বলেন,আমাদের বর্তমান যে টিম আছে আমি বলব, যেকোনও কন্ডিশনে আমাদের সুযোগ আছে। হয়তো বলতে পারেন আমাদের বোলিং অ্যাটাক অনভিজ্ঞ কিন্তু দক্ষ। তাদের যে প্ল্যান দেয়া হয়েছে সেটা যদি তারা বাস্তবায়ন করতে পারে তাহলে অনেক বড় মাইলফলক হতে পারে আমাদের ক্রিকেটের জন্য।

আজ সকাল দশটায় সাউথ আফ্রিকার উদ্দেশ্যে পাঁচজন খেলোয়াড় ঢাকা ছেড়েছেন। বাকিরা রওয়ানা হবে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায়। সাউথ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথমে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ দল।

তাই আপাতত টেস্ট দলে থাকা খেলোয়াড়রাই সাউথ আফ্রিকায় যাবেন। টেস্ট সিরিজ শেষে প্রোটিয়াদের বিপক্ষে তিনটি ওয়ানডে ও দুইটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে টাইগাররা। মূল সিরিজ শুরুর আগে আগামী ২১-২৩ সেপ্টেম্বর স্বাগতিকদের বিরুদ্ধে তিনদিনের একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ দল।

আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর শুরু হবে সিরিজের প্রথম টেস্ট ম্যাচ। দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হবে আগামী ৬ অক্টোবর। ওয়ানডে সিরিজের ম্যাচগুলি অনুষ্ঠিত হবে যথাক্রমে ১৫, ১৮ ও ২২ অক্টোবর। টি-টোয়েন্টি সিরিজের ম্যাচ দুইটি অনুষ্ঠিত হবে ২৬ ও ২৯ অক্টোবর।