slider জাতীয় রাজনীতি

সরকারের মন্ত্রিসভায় কারা বাদ পরছেন, কারা ঠাঁই পাচ্ছেন?

আসন্ন মন্ত্রিসভার রদবদলে যেসব মন্ত্রী বাদ পরবেন তাদের ভাগ্যে আগামী জাতীয় নির্বাচনে মনোনয়নও জুটবে না। আম-ছালা দু’টোই যাবে তাদের। আগামী জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে মন্ত্রীসভায় বড় ধরণের রদবদল ঘটতে যাচ্ছে। দায়িত্বশীল সূত্র এই আভাস দিয়েছেন। এর আগে আওয়ামী লীগের ২২ তম কাউন্সিলোত্তর ওয়ার্কিং কমিটি ঘোষণার পর দলের সাধারণ সম্পাদক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের মন্ত্রিসভায় রদবদলের আভাস দিয়েছিলেন। সরকারের ভিতরে-বাইরে এ নিয়ে আলোচনা জোরোশোরে বইছিল।

সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘের অধিবেশনে যোগ দেবার আগেই মন্ত্রিসভার রদবদল সম্পন্ন করে যেতে পারেন। এই রদবদল হবে আগামী দিনের রাজনীতি ও নির্বাচন সামনে রেখে সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তরাণ্বিতই নয়, সরকারে নতুন গতির সঞ্চার করা।

২০০৮ সালের জাতীয় নির্বাচনের পর যারা মন্ত্রিসভায় ঠাঁই পেয়েছিলেন তাদের কেউ কেউ ২০১৪ সালের নির্বাচনে মনোনয়ন বঞ্চিত হয়েছেন। এদের অন্যতম আব্দুল লতিফ বিশ্বাস ও আহাদ আলী সরকার রয়েছেন।

মন্ত্রিসভার রদবদলের বিষয়টি আসলে খবর হয় ২০০৯ সালে গঠিত শেখ হাসিনার সরকারের মন্ত্রিসভায় ঠাঁই পাওয়া অনেকেই এবার ঠাঁই পাচ্ছেন। যারা ২০১৪ সালের নির্বাচনে এমপিই হননি, দলের ওয়ার্কিং কমিটিতেও ঠাঁই পেয়েছেন। কিন্তু মন্ত্রিসভায় ঠাঁই পাননি। তাদের নিয়েই ব্যাপক আলোচনা আসে।

কিন্তু দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, আসন্ন মন্ত্রিসভার রদবদলে সেইসব আলোচিত সাবেক মন্ত্রীরা ঠাঁই পাচ্ছেন না। কারা মন্ত্রিসভা থেকে বাদ পরছেন, কারা ঠাঁই পাচ্ছেন? এ নিয়ে সরকার ও দলের অভ্যন্তরে তুমুল আলোচনা চলছে।সউজন্যেঃ পূর্বপশ্চিমবিডি