slider আন্তর্জাতিক

রোহিঙ্গা ইস্যুতে রেনাটাকে সরিয়ে নিলো জাতিসংঘ

রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘের রেসিডেন্ট কো-অর্ডিনেটর রেনাটা লক-ডেসালিয়েনকে মিয়ানমার ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছে সংস্থাটি। দেশটির সেনাবাহিনীর ক্রমাগত নৃশংসতায় রোহিঙ্গাদের পক্ষে আরো জোরালোভাবে অবস্থান নিচ্ছে জাতিসংঘ।

বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের প্রকাশিত এক প্রতিবদেনে জানানো হয়েছে, ‘মিয়ানমারের সেনারা সুপরিকল্পিতভাবে অভিযান চালিয়েছে, যাতে রোহিঙ্গাদের শুধু মিয়ানমারকে থেকে উৎখাতই নয়, তাদের ফেরত আসার রাস্তাও বন্ধ করে দেওয়া যায়। রোহিঙ্গাদের এমন ভাবে মানসিক আঘাত করা হয়েছে যে তারা দেশে ফেরার কথা ভাবলে শিউরে উঠে।’

এই প্রতিবেদন প্রকাশের পর পরই বৃহস্পতিবার মায়ানমারের রেসিডেন্ট কো-অর্ডিনেটর রেনাটা লক-ডেসালিয়েনকে এ মাসের মধ্যেই দায়িত্ব ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস।

জাতিসংঘের এক কর্মকর্তার কথায় —রোহিঙ্গাদের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ দূরে থাক, বিষয়টি উল্লেখ করা থেকেও বিরত থেকেছে রেনাটা। রেনাটার যুক্তি ছিল, এর ফলে মিয়ানমারে জাতিসংঘের কাজ করা কঠিন হবে।’

ওই কর্মকর্তা আরো জানিয়েছেন, জাতিসংঘের কোনও দল যাতে রাখাইনে না-যায়, সে বিষয়েও সচেষ্ট ছিলেন রেসিডেন্ট কমিশনার। মহাসচিবের দফতর থেকে এর আগেও তাকে সতর্ক করা হয়েছিল। এবার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতিই দেওয়া হল।

সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা ইস্যু বহুদিন ধরেই মিয়ানমারের অন্যতম আলোচিত সংকট। তবে এই সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কে ‘রোহিঙ্গা’ বলতে নারাজ মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। গত ২৫ আগস্ট রাতে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে কয়েকটি পুলিশ ফাঁড়ি ও তল্লাশিচৌকিতে সন্ত্রাসী হামলা এই সংকটকে নতুন করে উসকে দেয়। এর জেরে সেখানে নতুন করে সেনা অভিযান শুরু হয়, চলে দমন-পীড়ন। মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনী নিরস্ত্র রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ-শিশুদের ওপর নির্যাতন ও হত্যাযজ্ঞ চালাতে থাকে। এই পরিস্থিতিতে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশ আসছে।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) বলছে, সহিংসতার জেরে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গার সংখ্যা প্রায় সোয়া পাঁচ লাখ। তবে বেসরকারি হিসেবে এই সংখ্যা সাড়ে ছয় লাখ ছাড়িয়েছে। দিন দিন রোহিঙ্গা স্রোত কোনো মতেই থামছে না। যাদের বেশিরভাগই নারী ও শিশু। সহিংসতায় প্রাণ গেছে তিন হাজারের বেশি মানুষের। বেসরকারিভাবে এই সংখ্যা দশ হাজার পার করেছে মধ্য সেপ্টেম্বরেই। কোনো আন্তর্জাতিক প্রতিনিধিদল সেখানে কাজ করার সুযোগ না পাওয়ায় নতুন তথ্য জানা যাচ্ছে না।