বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ভিডিও

রাস্তায় নয়,আকাশে ও নয় মাটির নীচে ছুটবে এই বাস! দেখুন (ভিডিও)

%e0%a6%b0%e0%a6%be%e0%a6%b8%e0%a7%8d%e0%a6%a4%e0%a6%be%e0%a7%9f-%e0%a6%a8%e0%a7%9f-%e0%a6%ae%e0%a6%be%e0%a6%9f%e0%a6%bf%e0%a6%b0-%e0%a6%a8%e0%a7%80%e0%a6%9a%e0%a7%87রাজ্যের মুকুটে নতুন পালক। দেশের মধ্যে কলকাতাতেই প্রথম পাতালে ছুটেছিল রেলগাড়ি। এবার এই রাজ্যেই পাতালে ছুটবে বাসও।

পাতাল রেল চড়েছেন কলকাতায়। পাতাল বাসে চড়েছেন কখনও? দেশের মধ্যে কলকাতাতেই প্রথম পাতালে ছুটেছিল রেলগাড়ি। এবার এই রাজ্যেই পাতালে ছুটবে বাসও। তবে সাধারণ যাত্রীরা একটু হতাশ হতেই পারেন! কারণ এই বাস পরিষেবা শুধুমাত্র মিলবে খনি শ্রমিকদের জন্য।

সারাদেশের মধ্যে এই প্রথমবার মাইনিং বাসের ব্যবহার করতে চলেছে ইসিএল। খনিতে কয়লা তোলার কাজে যুক্ত শ্রমিকদের খনিগর্ভে পায়ে হেঁটে যেতে হয় মাইলের পর মাইল। ডুলির মাধ্যমে খনিতে নেমে তার পরে নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছে কয়লা খনন করতে হয় শ্রমিকদের। ভূগর্ভস্থ খনিগুলিতে এমনই ব্যবস্থা চালু রয়েছে সেই ব্রিটিশ আমল থেকে। বাস পরিষেবা শুরু হলে প্রযুক্তি চালু হওয়ায় এবারে শ্রমিকরা খনিগর্ভে পায়ে হেঁটে যাতায়াতের সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন। মাইনিং বাস একেবারে খনিমুখ থেকে ভূগর্ভ পর্যন্ত নিয়ে যাবে খনি শ্রমিকদের। কোল ইন্ডিয়ায় প্রথমবার রানিগঞ্জের ঝাঁঝরা খনিতে এই প্রযুক্তি চালু হতে চলেছে। ইসিএলের সিএমডি কারিগরি সচিব নিলাদ্রী রায় জানান, ‘মাইনিং বাসকে খনির পরিভাষায় বলা হয় ম্যান রাইডিং ড্রিফট রানার। মাইনিং বাস চালু হলে পথ হাঁটার ক্লান্তি আর থাকবে না খনি শ্রমিকদের মধ্যে। তাতে অনেকটা সময় বাঁচবে, কয়লা তোলার পরিমাণও বাড়বে। খনিগর্ভে শ্রমিকদের নিরাপত্তা আরও সুনিশ্চিত হবে।’

দেশে খনিগর্ভে বাস নামানোর প্রযুক্তি দেখে অস্ট্রেলিয়া থেকে তিনটি বাস আনানোর পরিকল্পনা করে ইসিএল। যার মধ্যে একটি আনা হয়েছে। খনির ভিতরে চলার জন্য বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছে বাসটিকে। ডিজেল চালিত এই বাসটির উচ্চতা ৬ ফুটের বেশি নয়। ৩০ জন শ্রমিক একসঙ্গে চড়তে পারবেন এই বাসে। সব মিলিয় এই প্রকস্পে ১৯০ কোটি টাকা ব্যয় হবে। বছরে ৩০ লক্ষ টন কয়লা উৎপাদন হবে ঝাঁঝরায়। দেশের মধ্যে বৃহত্তম খনি এটি। তাই এখানে মাইনিং বাসের ব্যবহার জরুরি ছিল। আসানসোল চেম্বার অফ কমার্সের দীর্ঘদিনের দাবি খনি পর্যটন চালু করার। যেমনটা রয়েছে বিদেশে। এই খনিতে মাইনিং বাসের ব্যবহারে পর্যটনের ক্ষেত্রে সেই পথ খুলে গেল। খনি পর্যটন চালু হয়ে গেলে এই বাসে করেই পর্যটকদের খনিগর্ভে নামতে পারবেন । পাতাল রেলের মতো পাতাল বাসে চড়ার ইচ্ছেপূরণও মিটে যাবে পর্যটকদের।

এখান ক্লিক করে ভিডিওটি দেখুন।

 



আজকের জনপ্রিয় খবরঃ

গুরুত্বপূর্ণ অ্যাপ:

  1. বুখারী শরীফ Android App: Download করে প্রতিদিন ২টি হাদিস পড়ুন।
  2. পুলিশ ও RAB এর ফোন নম্বর অ্যাপটি ডাউনলোড করে আপনার ফোনে সংগ্রহ করে রাখুন।
  3. প্রতিদিন আজকের দিনের ইতিহাস পড়ুন Android App থেকে। Download করুন

Add Comment

Click here to post a comment