রেসিপি লাইফ স্টাইল

যে কারণে গ্রিন টি খাবেন

সবুজ চা বা গ্রিন টি দিনদিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে চা প্রেমীদের কাছে। এটি আমাদের রূপচর্চার ক্ষেত্রেও সমান কার্যকর। লাবণ্যময় সতেজ ত্বকের জন্য উপকারী এই সবুজ চা। সবুজ চায়ে অ্যান্টি-অক্সিডেন্টসহ বেশ কিছু স্বাস্থ্যকর পুষ্টি উপাদান রয়েছে। তাই বিভিন্নরকম প্রসাধন সামগ্রী তৈরিতেও ব্যবহৃত হয় সবুজ চায়ের নির্যাস। সবুজ চা বা গ্রিন টি-র রয়েয়ে আরো অনেক গুণ।

সবুজ চা পান যেমন ত্বকের ভেতর থেকে সুরক্ষা দেবে, তেমনি রোদে পোড়া ত্বক স্বাভাবিক করতেও মাখা যেতে পারে সবুজ চা। এতে যেমন ত্বকের রোদ-পোড়া ভাব দূর হবে, তেমনি ত্বকও থাকবে সতেজ।

সূর্যালোকের অতিবেগুনি রশ্মির ক্ষতিকর প্রভাবে অল্প বয়সেই বুড়িয়ে যেতে পারে আপনার ত্বক। সবুজ চায়ের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট সূর্যালোকের অতিবেগুনি রশ্মির ক্ষতিকর উপাদান রোধ করে যা ত্বককে অল্প বয়সেই বুড়িয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করে।

ব্রণ ও ফুসকুড়ি ঠেকাতে খুবই উপকারে আসে সবুজ চায়ের ব্যাকটেরিয়ারোধক উপাদান ‘ক্যাটেচিন’। ত্বকের হরমোনের ওপর ক্রিয়া করে ব্রণ ও ফুসকুড়ি রোধে ভূমিকা রাখে এটা। সবুজ চা হালকা করে পানিতে ভিজিয়ে পুরো মুখে মাখিয়ে রাখলেও উপকার পাবেন আপনি।

সবুজ চায়ের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ত্বকের ক্যানসারের সঙ্গে লড়াইয়েও রাখে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। ক্যানসারের ক্ষতিকারক এনজাইম ঠেকাতে সহায়তা করে চায়ের এ উপাদান।

ত্বকের প্রদাহ থেকে মুক্তি দিতেও বিরাট উপশমকারীর ভূমিকা নিতে পারে সবুজ চা। এ ছাড়া ত্বকের প্রদাহজনিত রোগের ক্ষতিকর প্রভাব ঠেকাতে সাহায্য করবে এই চা।

প্রকৃতির এই অনন্য উপহার মানবকোষের নবায়নের প্রক্রিয়ায় দারুণ ভূমিকা রাখতে সক্ষম। পুরোনো কোষগুলোকে জৈবিকভাবে শক্তি জোগাতে পারে সবুজ চায়ের ‘পলিফেনল’ উপাদান। এভাবে অকালে বুড়িয়ে যাওয়া রোধ করতেও সহায়তা করে সবুজ চা।

Add Comment

Click here to post a comment