বিনোদন

এবার সালমানের স্ত্রীর চরিত্র নিয়ে যা বললেন সামিরার বর্তমান স্বামী

প্রয়াত চিত্রনায়ক সালমান শাহ। ক্যারিয়ারের তুঙ্গে থাকা অবস্থায় ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর তিনি রহস্যজনকভাবে মৃত্যুবরণ করেন। লাশ উদ্ধারের পর ধারণা করা হয় তিনি আত্মহত্যা করেছেন। কিন্তু পরিবারের দাবি, তাকে খুন করা হয়েছে। তার মৃত্যু নিয়ে এই রহস্যের জট দুই দশক পেরিয়ে গেলেও আজ পর্যন্ত খোলেনি।

সালমান শাহের পরিবারের সন্দেহের তালিকায় রয়েছেন সালমান শাহের স্ত্রী সামিরা ও সামিরার বর্তমান স্বামী মোস্তাক ওয়াইজ। তিনি সালমান শাহের বাল্যবন্ধুও। সালমানের মৃত্যুর তিন বছর পর মোস্তাক ওয়াইজ বিয়ে করেন সামিরাকে। সালমান শাহের মৃত্যু নিয়ে সংবাদমাধ্যমে মুখ খোলেননি সামিরা ও তার স্বামী মোস্তাক।

কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে, এই দম্পতি বর্তমানে থাইল্যাণ্ডে অবস্থান করছেন। কিন্তু থাইল্যান্ড নয়, সামিরা ও তার স্বামী বর্তমানে বাংলাদেশেই বাস করছেন। দেশের প্রথম সারির একটি অনলাইন গণমাধ্যমের সঙ্গে সরাসরি কথা হয় মোস্তাক ওয়াইজের। কথপোকথনের বিশেষ অংশ পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো।

মোস্তাক ওয়াইজকে প্রশ্ন করা হয়, আপনার ও সামিরার বিয়েটা কীভাবে হয়?

উত্তরে তিনি জানান, ‘পারিবারিকভাবে প্রস্তাবের মাধ্যমে আমাদের বিয়ে হয়। ১৯৯৯ সালে আমার বাবা এবং ২০১০ সালে আমার মা ইন্তেকাল করেন। ১৯৯৮ সালে আমার পরিবার বিয়ের প্রস্তাব দেয় এবং ১৯৯৯ সালে আমাদের বিয়ে হয়। আমার পরিবার সম্মানের সঙ্গে আদর করে সামিরাকে বউ করে নিয়ে আসেন। এখন যারা আমার পরিবারে আছেন সবাই সামিরাকে যথাযোগ্য মর্যাদায় মাথায় তুলে রাখেন। সামিরা সেই ধরনেরই বউ, সেই ধরনেরই মেয়ে। তার মধ্যে যদি কোনো ধরনের গলদ থাকত তা হলে আমার পরিবার তাকে মেনে নিত না। আমরা ১৮ বছর ধরে সংসার করছি।’

মোস্তাক ওয়াইজকে সামিরা সম্পর্কে আরও কিছু বলতে বললে তিনি বলেন, ‘আমার জানা মতে সামিরার আচরণ বা চরিত্রগত কোনোরকম সমস্যা ছিল না। কেউ যদি বলতে পারে সামিরার চরিত্র খারাপ আমি মাথা পেতে নেব।’

Advertisements