বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

ম্যাকবুক প্রো এখন পর্যন্ত তৈরি হওয়া সর্বশ্রেষ্ঠ নোটবুক

1aএক দিনের ব্যবধানে নতুন কম্পিউটার বাজারে আনার ঘোষণা দিয়েছে অ্যাপল ও মাইক্রোসফট। প্রতিষ্ঠান দুটির কম্পিউটারগুলোর যন্ত্রাংশ আলাদা হলেও একই শ্রেণির গ্রাহক, বিশেষ করে পেশাদার মানুষকে লক্ষ্য করে তৈরি করা হয়েছে। বিজ্ঞাপন, বিপণনেও সেই একই বার্তা। প্রতিদ্বন্দ্বী দুটি প্রতিষ্ঠানের প্রতিযোগিতা ছাপিয়ে আরেক বার্তা এখন সবার মুখে মুখে—পার্সোন্যাল কম্পিউটারের দিন ফুরিয়ে যায়নি।

অ্যাপল আর মাইক্রোসফট তাদের সর্বশেষ প্রযুক্তির ল্যাপটপ প্রকাশ করেছে। ২৬ অক্টোবর দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারির সারফেস বুক আই৭ দেখিয়েছে মাইক্রোসফট। পরদিন নতুন ম্যাকবুক প্রো ছেড়েছে অ্যাপল। নতুন ম্যাকবুক প্রোতে নতুনত্ব বলতে ফাংশন কি সরিয়ে ভার্চ্যুয়াল বোতামের সমন্বয়ে টাচ বার যোগ করা হয়েছে। চলমান সফটওয়্যার বা অপারেটিং সিস্টেমের প্রয়োজন অনুযায়ী নতুন বোতাম দেখাবে সেখানে। সঙ্গে আঙুলের ছাপ শনাক্ত করার প্রযুক্তি যোগ করা হয়েছে। দুটি ল্যাপটপের মধ্যে তুলনা চলে না। ম্যাকবুক প্রোর মতো সুবিধা নেই সারফেস বুক আই৭-এ। কিন্তু যে আশা নিয়ে অ্যাপলপ্রেমীরা চার বছর অপেক্ষা করেছে, তা কি পূরণ করতে পেরেছে অ্যাপল?

‘নতুন ম্যাকবুক প্রো এখন পর্যন্ত আমাদের বানানো সর্বশ্রেষ্ঠ ম্যাকবুক। এবং এখন পর্যন্ত তৈরি হওয়া সর্বশ্রেষ্ঠ নোটবুক।’ এই দুটি বাক্য দিয়েই কথা শেষ করেন অ্যাপলের প্রধান নির্বাহী টিম কুক। তাঁর কথায় সত্যতা হয়তো আছে। কিন্তু প্রতিষ্ঠান বিবেচনায় আনলে এবং পরপর দুই দিনে দুটি অনুষ্ঠানের কথা মাথায় আনলে অ্যাপল কিছুটা পিছিয়েই পড়ছে।

ভিডিওঃ দেখুন সুন্দরি মেয়েদের টাকা আয়ের নতুন উপায়!ভিডিও

Add Comment

Click here to post a comment