আন্তর্জাতিক

মেয়েদের গর্ভপাত আইন পাস করেই হোয়াইট হাউস ছাড়ছেন ওবামা

22আর মাত্র ক’দিন বাকি রয়েছে তাঁর মেয়াদ। দেশের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। আগামী জানুয়ারি মাস থেকে আমুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব নেবেন ট্রাম্প। তবে যাওয়ার আগে নিজের ৮ বছরের শাসনকালকে এক স্মরণীয় ‘উপহার’ দিয়ে যাচ্ছেন ওবামা।

তিনি এমন একটি আইন পাস করিয়ে যাচ্ছেন যার জেরে আমেরিকার অসংখ্য নিম্নবিত্ত নারীরা ভীষণভাবে উপকৃত হবেন। শিগগিরই নতুন একটি আইন আসবে যাতে সমস্ত আমেরিকান নারীরা স্বইচ্ছায় গর্ভবতী হতে পারবেন। গর্ভনিরোধক এবং অনিচ্ছাকৃত গর্ভাবস্থা থেকে মুক্তি পেতে তাঁরা চাইলে গর্ভপাতও করতে পারেন। এই আইন কোনো স্টেট বন্ধ বা বেআইনি ঘোষণা করতে পারবে না। ‘ট্রিপল এক্স’ প্রোগ্রাম নামে আমেরিকায় একটি সার্ভিস চালু রয়েছে যাতে প্রায় ৪০ লাখ নিম্নবিত্ত মানুষ নিখরচায় বা কম খরচায় স্বাস্থ্য পরিষেবা পেয়ে থাকেন। নতুন আইনে এটা পরিষ্কার বলে হয়েছে, রাজনৈতিক স্বার্থে কোনোভাবেই এই প্রোগ্রাম বন্ধ করা যাবে না।

মার্কিন মুলুকে এমন বহু স্টেট রয়েছে যেখানে নিজস্ব কিছু আইন মেনে চলা হয়। এমন ১১টি স্টেটে এখনো পর্যন্ত গর্ভপাত বেআইনি বলে মানা হয়। অনিচ্ছাকৃতভাবে সন্তান মাতৃগর্ভে চলে এলে বা পরীক্ষার পর যদি দেখা যায় বাচ্চাটির কোনো জটিল রোগ রয়েছে সে ক্ষেত্রেও মেলে না গর্ভপাতের অনুমতি। প্ল্যান্‌ড প্যারেন্টহুড নামে আমেরিকার একটি অলাভজনক সংস্থার উদ্যোগে এমন বহু পরিবার উপকৃত হয়েছে। সংস্থাটি কম টাকায় বা বিনে পয়সা পুরুষ এবং নারীদের গর্ভনিরোধক সরবরাহ করে, নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো, ক্যান্সার এবং STI স্ক্রিনিং পর্যন্ত করায়।

সংস্থার বিরুদ্ধে বেশ বিছু স্টেটে অভিযোগ করা হয়েছে যে এদের ক্লিনিকে গর্ভপাত করানো হয়। সংস্থায় সরকারি সাহায্য হিসাবে যে টাকা পৌঁছায় তা দিয়েই এই ‘অনৈতিক’ কাজ করছে তারা। তবে সংস্থার প্রধান সিসেলি রিচার্ডস সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘সরকারি সাহায্য থেকে পাওয়া কোনো অর্থ গর্ভপাতের জন্য ব্যবহৃত হয় না। এই আইন বলবত্‍ হলে অসংখ্য মানুষ উপকৃত হবেন। ওবামা প্রশাসনকে ধন্যবাদ। নিম্নবিত্ত মহিলারা এর ফলে প্রয়োজন মতো গর্ভনিরোধক ব্যবহার করে ফ্যামিলি প্ল্যানিং করতে পারবেন। এ ছাড়া প্রয়োজনে ক্যান্সার স্ক্রিনিং করাতে পারবেন। এই আইন এটা পরিষ্কার করে দেবে যে রাজনৈতিকরা আইনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে ভোটের জন্য নিজেদের এজেন্ডা ফলাতে গিয়ে মহিলাদের সেই সুবিধা থেকে বঞ্চিত করতে পারবেন না যার ওপর মহিলাদের অধিকার রয়েছে।’

উল্লেখ্য, ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচনী প্রচারে এই প্রোগ্রামের সমালোচনা করেছিলেন। তিনি ফ্যামিলি প্ল্যানিং এবং গর্ভপাতের বিরোধী তা সোচ্চারে ঘোষণাও করেন। তাই মনে করা হচ্ছিল, ক্ষমতায় এলে তিনি এই প্রোগ্রাম বন্ধ তো করতেনই সঙ্গে গর্ভপাত বা গর্ভনিরোধকের ব্যবহারও বেআইনি ঘোষণা করতেন। নতুন আইনের ফলে এ সম্ভাবনা আর থাকছে না।

-সূত্র: এই সময়

ভিডিওঃ সেই চমক দেখানো হট ডান্স মন গরম হবে

Add Comment

Click here to post a comment