খেলা-ধুলা

মেসিকে হারিয়ে দিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো!

প্রত্যাশা মতোই এবার ব্যালন ডি’অর পুরস্কার পাচ্ছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো৷ সোমবার সন্ধ্যায় ফ্রান্সের প্যারিসে এক অনুষ্ঠানে ব্যালন ডি’অর জয়ী রোনাল্ডোর নাম আনুষ্ঠানিকবভাবে ঘোষণা করে ফ্রান্স ফুটবল ম্যাগাজিন। গোটা বিশ্বের ১৭৩ জন সাংবাদিকদের ভোটে পাঁচবারের বিজয়ী লিওনেল মেসিসহ সবাইকে পিছনে ফেলে এবার বর্ষসেরার এই পুরস্কারটি জিতলেন রিয়াল মাদ্রিদের পর্তুগিজ তারকা। এর আগে ২০০৮, ২০১৩ ও ২০১৪ সালে বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার জিতেছিলেন সিআর-সেভেন৷

গত জুলাইয়ে অধিনায়ক হয়ে রোনাল্ডো তার দেশ পর্তুগালকে প্রথমবারের জন্য ইউরো কাপ জিতিয়ে ইতিহাস তৈরি করেছিলেন৷ তার আগে মে মাসে তাঁর ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছিল, যেখানে সবচেয়ে বড় অবদান রেখেছিলেন রোনাল্ডো৷ সারা বছর জুড়ে রোনাল্ডোর দুরন্ত পারফরম্যান্স এবং ক্লাব ও জাতীয় দলের হয়ে সাফল্যের মুকুট পরা পর্তুগিজ তারকা সবমিলিয়ে চতুর্থবারের মতো বর্ষসেরা ফুটবলারের সম্মান পেলেন৷ এবং প্রতিবারই তার প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনা তারকা লিওনেল মেসি ছিলেন। মেসিও অবশ্য আগে পাঁচবার বর্ষসেরা হয়েছেন এই রোনাল্ডোরকে পিছনে ফেলেই৷

এবার ফিফার থেকে আলাদা হয়ে ব্যালন ডি’অর পুরস্কার দিচ্ছে ফরাসি ম্যাগাজিনটি৷ গত অক্টোবরে এই পুরস্কারের জন্য ৩০ জনের সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রকাশ করেছিল ফ্রান্স ফুটবল। রোনাল্ডোর সঙ্গে দৌড়ে ছিলেন গতবারসহ পাঁচবারের বর্ষসেরা মেসি, গত বছর তৃতীয় হওয়া নেইমার, বার্সেলোনার গত মরশুমের সর্বোচ্চ গোলদাতা লুইস সুয়ারেজ, ক্লাব ও দেশের হয়ে দুর্দান্ত খেলা ফ্রান্সের গ্রিজমানের মতো তারকারা।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গত আসরে সর্বোচ্চ ১৬ গোলটি গোল করেছিলেন৷ গোল করিয়ে ছিলেন ৪টি৷ গোল মেশিন রোনাল্ডোই আতলেতিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে ফাইনালে টাইব্রেকারের জয়সূচক গোলটি করেছিলেন। পাশাপাশি গত মরশুমে স্প্যানিশ লা লিগায় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৫টি গোল করেছিলেন রানার্স-আপ হওয়া রিয়ালের এই তারকা। আর সতীর্থদের দিয়ে করিয়েছিলেন পাঁচটি গোল। চলতি মরশুমে এখন পর্যন্ত ১০টি গোল করেছেন তিনি।

ইউরো কাপে দেশের জার্সিতে করেছিলেন ৩টি গোল৷ সাম্প্রতিক সময়েও জাতীয় দলের হয়ে ছন্দে আছেন সিআর-সেভেন। বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে তিন ম্যাচ খেলে করেছেন ৭টি গোল।

ফিফার বর্ষসেরা পুরস্কার আর ফ্রান্স ফুটবলের ব্যালন ডি’অর একত্রিত হয়েছিল ২০১০ সালে। সেই থেকে মেসি আর রোনাল্ডোই শুধু ‘ফিফা ব্যালন ডি-অর’ নামে পরিচিত পুরস্কারটি জেতেন। ফিফার সঙ্গে চুক্তি শেষ হয়ে যাওয়ায় এ বছর থেকে আবার একক ভাবেই ব্যালন ডি’অর দেওয়া শুরু করল ফ্রান্স ফুটবল।

ব্যালন ডি’অর জয়ী নির্ধারণ করা হতো শুধু সাংবাদিকদের ভোটে। ফিফার বর্ষসেরা পুরস্কারের সঙ্গে একত্রিত হওয়ার পর জাতীয় দলের কোচ আর অধিনায়কদের ভোটও যোগ হয়। এখন আবার আগের নিয়মে বর্ষসেরা ফুটবলার বেছে নিল ফ্রান্স ফুটবল।

তবে রোনাল্ডো এবার এই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পারলেন না৷ ক্লাব বিশ্বকাপে খেলতে রিয়ালের হয়ে এখন তিনি জাপানে। প্রীতি ম্যাচ খেলতে বার্সেলোনা দলের সঙ্গে কাতারের পথে মেসি-সুয়ারেজরা।

ভিডিও:আজব এক গাছ যে খাবার খায় আবার ধুমপানও করে দেখুন সেই অস্থির (ভিডিও)

Advertisements

Add Comment

Click here to post a comment