অন্যরকম খবর

মায়ের বকুনি খেয়ে পালানো দুই ভাইবোন উদ্ধার

মায়ের বকুনি খেয়ে ঢাকার মুগদাপাড়া বাসা থেকে পালানো তাসপিয়া (১০) ও আবদুল্লাহ আল আবি (৭) নামে দুই ভাইবোনকে হাজীগঞ্জ বাজার থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার ভোরে শিশুদের মা ও আত্মীয় স্বজন থানায় এসে তাদের ঢাকায় নিয়ে গেছেন।

তাসফিয়া পঞ্চম শ্রেণি ও আবি দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়াশোনা করে। তাদের বাবার নাম আসাদুজ্জামান। তিনি বিদেশে থাকেন।

হাজীগঞ্জ থানা পুলিশ জানায়, ঢাকা থেকে চাঁদপুরগামী পদ্মা এক্সপ্রেসের একটি বাস থেকে সোমবার রাত সাড়ে ১১টায় শিশু দুইটি হাজীগঞ্জ বাজারে নামে।

বাস থেকে নামার পর শিশু দু’টি সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে কান্নাকাটি করছিল। এ সময় সোহাগ নামে এক যুবক শিশু দুইটির সঙ্গে কথা বলেন।

সোহাগ বাজারে টহল পুলিশের দায়িত্বে থাকা হাজীগঞ্জ থানার এসআই জসিম উদ্দিনকে ঘটনাটি জানান।

এসআই জসিম উদ্দিন শিশুদের সঙ্গে কথা বলে তাদের থানায় নিয়ে যান। পরে তাসফিয়ার কাছ থেকে তার মা বিনা জামানের মোবাইলফোন নাম্বার নিয়ে কথা বলেন।

বিনা জামান  বলেন, তিনি চিকনগুনিয়ায় আক্রান্ত। সোমবার ছেলে মেয়েরা স্কুলে যাওয়ার সময় বাইরে থেকে দরজা আটকে বাড়ি থেকে বের হয়।

পরে সন্ধ্যা পর্যন্ত তারা বাসায় না ফেরায় এলাকায় মাইকিং করি। আত্মীয়-স্বজনের বাসায় খোঁজ করি।

রাত ১২টায় মুগদা থানায় জিডি করার জন্য যাই। এ সময় হাজীগঞ্জ থানা থেকে ফোন করে শিশুরা তাদের হেফাজতে আছে বলে নিশ্চিত করে।

হাজীগঞ্জ থানার এসআই জসিম উদ্দিন বলেন, স্কুল ছুটির পর বাচ্চা দুইটি রিকশায় টিকাটুলি এসে পদ্মা এক্সপ্রেসের বাসে উঠে। খবর পেয়ে মঙ্গলবার ভোরে শিশুদের মা ও আত্মীয়-স্বজন এসে বাচ্চা দুটিকে নিয়ে গেছেন।

বিনা জামানের বাবার বাড়ি ফরিদগঞ্জ উপজেলার কাইজাঙ্গা গ্রামে। সেই সূত্রে শিশু দুইটি তার নানার বাড়ির উদ্দেশ্যেই বাসা ছেড়ে চলে আসে।